খবররাজ্য

‘পিসির কথায় চা-ঘুগনি বিক্রি করছি’, দূর্গাপুরে অভিনব প্রতিবাদ বিজেপির কর্মী সমর্থকদের 

মহানগর বার্তা ডেস্ক : খড়গপুর স্টেডিয়াম থেকে জনসাধারণের উদ্দেশে বার্তা দেওয়ার সময় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়(Mamata Banerjee) পুজোয় বাড়তি আয়ের পরামর্শ দিয়েছিলেন। তিনি বলেন, পুজোয় চা-মুড়ি-ঘুগনি নিয়ে ব্যবসা শুরু করুন। দেখবেন কত লাভ হচ্ছে। বিক্রি করে শেষ করতে পারবেন না। এবার এর বিরুদ্ধেই সরব হল গেরুয়া শিবির। দূর্গাপুরে বিজেপির দলীয় কর্মী ও সমর্থকেরা চা মুড়ি খাইয়ে প্রতিবাদ করলেন। পাশাপাশি রাস্তায় বসে বালিশে কাশফুল ভরেও কোকওভেন থানার সামনে বিক্ষোভ দেখান বিজেপি নেতৃত্বরা।

এর আগেও মুখ্যমন্ত্রীর (Mamata Banerjee)করা নানা মন্তব্যের জেরে বিতর্ক ছড়িয়েছিল। এবারও তার অন্যথা নয়। মমতার চা-মুড়ি-ঘুগনি নিয়ে করা কথার পরিপ্রেক্ষিতে তীব্র প্রতিবাদ জানালেন বিজেপি কর্মী সমর্থকেরা। সাংবাদিকের প্রশ্নের উত্তরে এক মহিলা বিজেপি কর্মী বলে ওঠেন, ” পিসি চা-মুড়ি-ঘুগনি বিক্রি করতে বলেছে তাই করছি।” একপ্রকার বিদ্রুপের সুরেই মাননীয়াকে কটাক্ষ করেছে গেরুয়া শিবির। যদিও অনেক তৃণমূল নেতা নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই মন্তব্যকে সমর্থন করে তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছেন।

আরও পড়ুন : “আপনি অবতার! রাম, কৃষ্ণ ও গান্ধীর মত অমর থাকবেন”,মোদীর জন্মদিনে আবেগতাড়িত কঙ্গনা

প্রসঙ্গত, প্রকল্পের মঞ্চ থেকে মমতা বলেছিলেন, “১০০০ টাকা জোগাড় করুন। তা দিয়ে একটা কেটলি কিনুন আর কয়েকটা মাটির ভাঁড় নিন। প্রথম সপ্তাহে বিস্কুট নিলেন। তারপরের সপ্তাহে মাকে বললেন একটু ঘুগনি তৈরি করে দিতে। তারপরের সপ্তাহে একটু তেলেভাজা করলেন। একটা টুল আর একটা টেবিল নিয়ে পুজোতে বসলে দেখবেন প্রচুর লাভ হচ্ছে। কোনও কাজকে ছোটো করবেন না। কচুরিপানা শুকিয়ে ব্যাগ তৈরি হচ্ছে, খাবার থালা তৈরি হচ্ছে, ভাবতে পারছেন আমরা কতটা এগিয়ে আছি। দুর্গাপুজোয় ফোটা কাশফুলগুলোকে এককাট্টা করে, তুলো মিশিয়ে লেপ, বালিশ তৈরি করতে পারেন৷” আর এই মন্তব্য ঘিরেই বিতর্কের সৃষ্টি।

সবার খবর সঠিক খবর পড়তে চোখ রাখুন মহানগর বার্তায়

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close