রাজ্যখবর

“মন্ত্রী বিধায়করা পুজোর সময় বাইরে যান, আমি জীবনে যাইনি”, প্রশাসনিক বৈঠকে মন্তব্য মমতার

মহানগর বার্তা ডেস্ক : তৃতীয়বার মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর প্রথমবারের জন্য পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় গেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়(Mamata Banerjee)। সেখানকার দলীয় নেতৃত্বদের সাথে বৈঠক সারলেন মাননীয়া। উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক, পুরসভা এবং জেলা পরিষদের সদস্যরা। সাধারণ মানুষের পাশে থাকার বার্তা, ছেলেমেয়েদের চাকরির সুযোগ সহ একাধিক বিষয়ে কথা বলেন তিনি। পাশাপাশি সেই বৈঠক থেকেই নেতা-নেত্রী ও বিধায়কদের মানুষের পাশে থাকার কথা বলেন।

মমতা(Mamata Banerjee) বলেন, “পূজোর রুটিন এখন থেকেই করে নাও। অনেক মন্ত্রী বিধায়ক আছেন যারা পূজোর সময় বাইরে বেড়াতে চলে যান। পুজোয় কোনো বিপদ হলে কে দেখবে? আমি জীবনে কোনোদিনও কলকাতা ছাড়িনা। তার লক্ষ্য হল কোটি কোটি মানুষ বাইরে থেকে আসেন। আমার নিজের রাজ্যের মানুষ আছে। মনে রাখবেন মানুষের বন্ধু হতে হবে। রাজনীতির এবং প্রশাসকের বড় কাজ হচ্ছে যোগ্য মানুষ হতে হবে। মানবিক হতে হবে। যেখানে যেমন দরকার তেমন হতে হবে। অন্যায় করলে বকবার ক্ষমতা যেমন থাকবে, আবার খেতে পারছে না এমন মানুষের কাছে চাল পৌঁছে দেওয়ার মতো মানবিকও হতে হবে। কোথাও বেআইনি কিছু ঘটলে সরাসরি পুলিশকে খবর দেবেন।” পাশাপশি সাংবাদিকদেরও ইতিবাচক কাজ করার কথা বলেন তিনি।

আরও পড়ুন : ‘বিনা প্রতিবাদে সুরসুর করে পুলিশের গাড়িতে উঠে গেলেন’, শুভেন্দুকে ‘সুখের পায়রা’ বললেন দেবাংশু

এদিন মমতা(Mamata Banerjee) ৪৭ টি প্রকল্পের শিল্যান্যাস করলেন। দিঘা সৈকত সুন্দরীর উদ্বোধন করেন তিনি। দিঘা সংলগ্ন এলাকার দূর্ঘটনা কমানোর জন্য বিশেষ নজর দিতে বলেন। তিনি আরও বলেন, পুজোর আগেই যাতে বাংলার বাড়ি শেষ হয় এই দিকেও নজর দিতে হবে। এদিন সরকারের উন্নয়নের খতিয়ানও তুলে ধরেন তিনি। মমতা বলেন দেউচা পাচামিতে আদিবাসীদের চাকরি দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও সমস্ত সুযোগ সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। সরকার এখন wbcs ট্রেনিং দিচ্ছে। এর সাথে বিজেপির নবান্ন অভিযান নিয়েও ক্ষোভ উগড়ে দিলেন মমতা। প্রশাসনিক বৈঠকে মমতা বলেন, “নবান্ন অভিযানের নামে গুন্ডামি হয়েছে।” সাফ জানালেন যারা অশান্তি ছড়িয়েছে তাদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সবার খবর সঠিক খবর পড়তে চোখ রাখুন মহানগর বার্তায়

সবার খবর সঠিক খবর পড়তে চোখ রাখুন মহানগর বার্তায়

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close