রাজ্য

‘আমি একটু আঁকি, মানুষের তাতে হিংসা’, নিন্দুকদের এক হাত নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজনীতির বাইরে বহুমুখী প্রতিভার কথা আজ আর অবিদিত নেই কারোরই। গান, কবিতা লেখা থেকে শুরু করে ছবি আঁকা, সব ক্ষেত্রেই সমান পারদর্শিতার পরিচয় দিয়েছেন তিনি। শুধু তাই নয়, এই আনুষাঙ্গিক শিল্প প্রতিভা থেকে পাওয়া অর্থেই যে তাঁর দিন চলে যায় সে কথাই আরো একবার স্মরণ করিয়ে দিলেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন সাংবাদিকদের সামনে তিনি আরো একবার জানান তিনি মুখ্যমন্ত্রী পদের কোনো রকম পারিশ্রমিক নেন না। বলেন, “আমি সংসদের পেনশন নিই না। ১ লক্ষ টাকা পেনশন নিইনি। গত ৬ বছর ধরেই নিই না। বিধানসভায় ১ লক্ষ টাকা মাইনে পেতে পারি। আমি এক পয়সাও নিই না। আমি সরকারি সার্কিট হাউসেও নিজের টাকায় বিল মেটাই।”

কীভাবে তাঁর দিন চলে তাহলে? নিজেই সেই প্রশ্নের জবাব দেন মুখ্যমন্ত্রী। বলেন,”যদি বলেন কোথা থেকে খরচ করেন? আমি বই লিখি। আমি গানের সিডি বানাই। তার থেকে যেটুকু পাই।” শুধু তাই নয়,মুখ্যমন্ত্রীর এরপরের সংযোজন, “আমি একা মানুষ, আমার সবটাই জনগণের।”

এখানেই শেষ নয়, তাঁর সরকারের বিরুদ্ধে বিরোধীদের বিবিধ অভিযোগেরও এদিন জবাব দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শাসক দলের বিরুদ্ধে প্রধান বিরোধী দল বিজেপির অন্যতম অভিযোগ দুর্নীতির। তিনি এবং তাঁর কর্মচারীরা যে দুর্নীতিগ্রস্ত, আদতে যে হাওয়াই চটির অন্তরালে লুকিয়ে আছে ঘোরতর দুর্নীতি সে কথাই বলেন বিরোধীরা। সে প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য, “আমি একটু আঁকি। এত হিংসা! কেন আমি এঁকেছি? কেন আমি টাকা দিই? সে টাকা গিয়েছে মুখ্যমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে। রাজ্যপালের ত্রাণ তহবিলে।”

বিরোধীদের পাল্টা দিতেও ছাড়েন না তৃণমূল নেত্রী। বলেন, ”আমি যদি পার্টিকে কিছু দিয়ে সাহায্য করি। আপনাদের তো হাজার হাজার কোটি টাকার হিসাব নেই।”

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, মুখ্যমন্ত্রীর লেখা কবিতা গান কিংবা তাঁর আঁকা ছবি নিয়ে প্রায়সই ব্যঙ্গ করতে দেখা যায় বিরোধীদের। কিন্তু কোনোদিনই সেসবকে বিশেষ পাত্তা দেন নি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close