দেশ

মহাভারতের পুনরাবৃত্তি? বউকে বাজি রেখে জুয়া খেলল স্বামী, হারের পর তুলে দিল বন্ধুদের হাতে

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: মহাভারতের পাশা খেলায় নিজের পাঁচ ভাই আর স্ত্রীকে বাজি রেখেছিলেন যুধিষ্ঠির। আর তার পরের বিধ্বংসের ঘটনা সকলেরই জানা। দ্রৌপদীর অভিশাপে ছাড়খাড় হয়ে গিয়েছিল বিশাল কুরু সাম্রাজ্য। রক্তের বন্যা বয়েছিল কুরুক্ষেত্রের প্রান্তরে। এবার বাস্তবেও উঠে এল প্রাচীন সেই মহাকাব্যের কাহিনীর আঁচ।

মদের নেশায় জুয়া খেলতে খেলতে নিজের বউকেই বাজি রেখে বসলেন এক ব্যক্তি। ঘটনার পরিণতিও হল ভয়ানক। বাজি হেরে যাওয়ায় ওই ব্যক্তির স্ত্রীকে ধর্ষণ করেছে তাঁর বন্ধুরা, এমনটাই অভিযোগ উঠল কয়েকজনের বিরুদ্ধে। জানা গেছে, ঘটনাটি ঘটেছে বিহারের ভাগলপুরে।

অভিযোগ ৩২ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি মদ্যপ অবস্থায় তাঁর বন্ধুদের নিজের বউকে ধর্ষণ করার অনুমতি দেয়। একবার নয়, একাধিক বার। এখানেই শেষ নয়, মেয়েটি এই কাজ করতে বাঁধা দিলে তাঁর স্বামী তাঁর উপর অ্যাসিড দিয়ে হামলা করারও চেষ্টা করে বলে অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাস্থল থেকে কোনোরকমে পালিয়ে প্রাণ বাঁচায় তরুণী। সে দৌড়ে নিজের বাপের বাড়ি চলে যায়।

গত ১৩ ডিসেম্বর ওই তরুণী স্থানীয় সমাজকর্মী দীপক সিংয়ের কাছে সাহায্য চাইতে এলে ঘটনাটি জনসমক্ষে আসে। পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করা হলে পুলিশ অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে। আপাতত সে পুলিশি হেফাজতেই রয়েছে বলে জানা গেছে।

সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী গত দশ বছর ধরে ওই দম্পতি বিবাহিত, কিন্তু তাঁদের কোনো সন্তান হয় নি। সন্তান না হওয়ার জন্য তাঁর স্বামী নিয়মিত তাঁর উপর শারিরীক অত্যাচার করত বলেও অভিযোগ করেছে ওই তরুণী। গত ২৮ অক্টোবর সে নিজের কিছু বন্ধুর সঙ্গে একটি ঘরে আটকে দেয় তাঁকে। সেখানে তাঁকে ধর্ষণ করা হয় বলে জানিয়েছে ওই তরুণী।

ভাগলপুরের পুলিশ সুপার আশিস ভারতী জানিয়েছেন, “অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আমরা খুব শীঘ্রই মামলা দায়ের করব, এ ব্যাপারে এখন তদন্ত চলছে।” আজকের দিনে দাঁড়িয়েও মহাভারতের ঘটনার ছায়া নিঃসন্দেহে ঘৃণ্য এবং শাস্তিযোগ্য।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close