মহানগর

বউ আকাশের চাঁদ চেয়েছিলেন, আবদার মেটাতে চাঁদের মাটিতে জমি কিনে উপহার দিলেন স্বামী

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: “তুমি চাইলে আকাশের চাঁদটাও এনে দিতে পারি”। রোমান্টিক আবহে এই সংলাপ যতই মধুর হোক না কেন, বাস্তবে যে এই ঘোষণাএকেবারেই অবাস্তব তা সকলেরই জানা। কিন্তু সত্যিই কি তাই? না। একুশ শতকের বিজ্ঞানের জয়যাত্রায় রোমান্টিক ওই ঘোষণাটি আর অবাস্তব অলীক কল্পনা নয়। এদিন তারই এক উজ্জ্বল প্রমাণ পাওয়া গেল ভারতের মাটিতে।

স্ত্রীর অলীক কল্পনাকে বাস্তবায়িত করে দেখালেন স্বামী। স্ত্রীর ইচ্ছে অনুযায়ী রীতিমতো চাঁদের মাটিতে জমি কিনে দিলেন তিনি। শুনতে অবাক লাগলেও এই আপাত অসম্ভব ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানে। জানা গেছে, বিবাহ বার্ষিকীর উপহার হিসেবেই স্ত্রীকে চাঁদের জমি দিয়েছেন ওই ব্যক্তি।

সূত্রের খবর অনুযায়ী, রাজস্থানের বাসিন্দা ধর্মেন্দ্র আনিজা জমি কিনেছেন চাঁদের মাটিতে। মোট তিন একর জমি কিনেছেন তিনি। আর তা লিখে দিয়েছেন স্ত্রী স্বপ্না আনিজার নামে। তিনি জানিয়েছেন তাঁদের অষ্টম বিবাহ বার্ষিকীর দিনটাকে খানিক অন্যরকম করে তোলার জন্যই এই কাজ করেছেন তিনি। ধর্মেন্দ্র আনিজার কথায়, “বিবাহ বার্ষিকী দিনটাকে অন্যরকম করতে চেয়েছিলাম। সবাই গাড়ি, বাড়ি, দামি গয়না দেয় ঠিকই, আমি সে সবের ঊর্ধ্বে গিয়ে অন্যরকম কিছু করতে চেয়েছিলাম। তাই অষ্টম বিবাহ বার্ষিকীতে চাঁদের জমি কিনে তা উপহার হিসেবে দেওয়ার পরিকল্পনা করি।” গত ২৪ ডিসেম্বর তাঁদের বিবাহ বার্ষিকী ছিল।

কোথা থেকে কীভাবে চাঁদের জমি কিনলেন ধর্মেন্দ্র আনিজা? জানা গেছে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কের লুনা সোসাইটি ইন্টারন্যাশেনালের কাছ থেকে এই তিন একর জমি কেনা হয়েছে। কিনতে সময় লেগেছে প্রায় ১ বছর। ধর্মেন্দ্র আনিজা জানিয়েছেন, “আমি খুব খুশি, কারণ রাজস্থানে থেকে আমিই প্রথম চাঁদে জমি কিনলাম।”

মহাজাগতিক উপহার পেয়ে উচ্ছ্বসিত ধর্মেন্দ্র আনিজার স্ত্রী স্বপ্না আনিজাও। তাঁর কথায়, “আমি খুব খুশি হয়েছি। কোনও দিনও ভাবতে পারিনি আমার স্বামী আমায় এমন একটা উপহার দেবেন। উপহারটি পাওয়ার পর সত্যি আমার মনে হচ্ছিল আমি যেন স্বপ্নের চাঁদে বসে আছি। বিবাহ বার্ষিকীর অনুষ্ঠান চলাকালীন তিনি এই সারপ্রাইজ দেন আমায়।”

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, পৃথিবী থেকে চাঁদের মাটিতে জমি কেনার ঘটনা এই প্রথম নয়। এর আগে অনেকেই এই কাজ করেছেন। ভারত থেকে প্রয়াত বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত এবং বলিউডের সুপারস্টার শাহরুখ খানও চাঁদের মাটিতে জমি কিনেছিলেন। তবে বউয়ের স্বপ্ন পূরণ করতে এমন ঘটনা সত্যিই বিরল।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close