অন্যান্য

টাকা নেই! ট্রাফিক ফাইন দিতে না পেরে স্কুটিটাই পুলিশকে দিয়ে দিলেন সবজি বিক্রেতা

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্ক: চল্লিশ হাজার টাকার উপর জরিমানা করা হয়েছিল তাঁকে, টাকার অঙ্ক শুনে নিজের সেকেন্ড হ্যান্ড মোটরসাইকেলটাই পুলিশের হাতে তুলে দিলেন এক সবজি বিক্রেতা। অভিনব এই ঘটনাটি ঘটেছে বেঙ্গালুরুতে। একাধিক বার ট্রাফিক নিয়ম ভঙ্গ করার জন্য বেঙ্গালুরুর ট্রাফিক পুলিশ এই বিশাল অঙ্কের টাকা জরিমানা ধার্য করেছিলেন তাঁর জন্য। কিন্তু স্বভাবতই অত টাকা তাঁর কাছে ছিল না।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বেঙ্গালুরুর ওই ব্যক্তির নাম অরুণ কুমার। তিনি সবজি বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করেন। কিন্তু ট্রাফিক নিয়ম ভঙ্গ করা যেন তাঁর স্বভাবে পরিণত হয়েছে। সব মিলিয়ে বর্তমানে তাঁর বিরুদ্ধে মোট ৭৭টি ট্রাফিক আইন লঙ্ঘন করার অভিযোগ রয়েছে বলে জানা গেছে।

 

শুক্রবার মাথায় হেলমেট না পড়ে মোটরসাইকেল চালানোর অপরাধে বেঙ্গালুরুর ট্রাফিক পুলিশ তাঁকে আট করে। পুলিশ দেখে দীর্ঘদিন ধরে জমে থাকা অভিযোগ অনুযায়ী তাঁর জরিমানার মোট পরিমাণ ছাড়িয়ে গেছে ৪০০০০ টাকার গন্ডি। মোট ৪২৫০০ টাকা জরিমানা হয়েছে তাঁর।

 

অরুণ কুমার কিছুদিন আগেই প্রায় ২০০০০ টাকা দামের একটি সেকেন্ড হ্যান্ড মোটরসাইকেল কিনেছিলেন। জরিমানার টাকা দেওয়ার ক্ষমতা না থাকায় সেই মোটরসাইকেল পুলিশের হাতে তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। জানা গেছে, বকেয়া জরিমানা দিতে না পারলে অরুণ কুমারের ওই মোটরসাইকেল পুলিশ নিলামে বিক্রি করবে।

 

বস্তুত, শোনা গেছে সম্প্রতি বেঙ্গালুরু ট্রাফিক পুলিশ বাড়ি বাড়ি গিয়ে আইন লঙ্ঘনকারীদের কাছ থেকে বকেয়া জরিমানার টাকা আদায় করতে শুরু করেছে। প্রায় ১৫০ কোটির কাছাকাছি টাকা জমে রয়েছে বলে ‘ব্যাঙ্গালোর মিরর’ সূত্রের খবর। ইতিমধ্যে প্রথম দিনে মোট ১১৪৮৮টি ঘটনায় প্রায় ৪৯ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা সম্ভব হয়েছে। দ্বিতীয় দিনে মোট ৭৯৭৮টি ঘটনায় প্রায় ৩৪ লাখ টাকার জরিমানা আদায় করা হয়েছে।হাজার টাকার উপর জরিমানা করা হয়েছিল তাঁকে, টাকার অঙ্ক শুনে নিজের সেকেন্ড হ্যান্ড মোটরসাইকেলটাই পুলিশের হাতে তুলে দিলেন এক সবজি বিক্রেতা। অভিনব এই ঘটনাটি ঘটেছে বেঙ্গালুরুতে। একাধিক বার ট্রাফিক নিয়ম ভঙ্গ করার জন্য বেঙ্গালুরুর ট্রাফিক পুলিশ এই বিশাল অঙ্কের টাকা জরিমানা ধার্য করেছিলেন তাঁর জন্য। কিন্তু স্বভাবতই অত টাকা তাঁর কাছে ছিল না।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বেঙ্গালুরুর ওই ব্যক্তির নাম অরুণ কুমার। তিনি সবজি বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করেন। কিন্তু ট্রাফিক নিয়ম ভঙ্গ করা যেন তাঁর স্বভাবে পরিণত হয়েছে। সব মিলিয়ে বর্তমানে তাঁর বিরুদ্ধে মোট ৭৭টি ট্রাফিক আইন লঙ্ঘন করার অভিযোগ রয়েছে বলে জানা গেছে।

শুক্রবার মাথায় হেলমেট না পড়ে মোটরসাইকেল চালানোর অপরাধে বেঙ্গালুরুর ট্রাফিক পুলিশ তাঁকে আট করে। পুলিশ দেখে দীর্ঘদিন ধরে জমে থাকা অভিযোগ অনুযায়ী তাঁর জরিমানার মোট পরিমাণ ছাড়িয়ে গেছে ৪০০০০ টাকার গন্ডি। মোট ৪২৫০০ টাকা জরিমানা হয়েছে তাঁর।

অরুণ কুমার কিছুদিন আগেই প্রায় ২০০০০ টাকা দামের একটি সেকেন্ড হ্যান্ড মোটরসাইকেল কিনেছিলেন। জরিমানার টাকা দেওয়ার ক্ষমতা না থাকায় সেই মোটরসাইকেল পুলিশের হাতে তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। জানা গেছে, বকেয়া জরিমানা দিতে না পারলে অরুণ কুমারের ওই মোটরসাইকেল পুলিশ নিলামে বিক্রি করবে।

বস্তুত, শোনা গেছে সম্প্রতি বেঙ্গালুরু ট্রাফিক পুলিশ বাড়ি বাড়ি গিয়ে আইন লঙ্ঘনকারীদের কাছ থেকে বকেয়া জরিমানার টাকা আদায় করতে শুরু করেছে। প্রায় ১৫০ কোটির কাছাকাছি টাকা জমে রয়েছে বলে ‘ব্যাঙ্গালোর মিরর’ সূত্রের খবর। ইতিমধ্যে প্রথম দিনে মোট ১১৪৮৮টি ঘটনায় প্রায় ৪৯ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা সম্ভব হয়েছে। দ্বিতীয় দিনে মোট ৭৯৭৮টি ঘটনায় প্রায় ৩৪ লাখ টাকার জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close