রাজ্য

ধর্ষণ রুখতে জুতো, হাথরাস কান্ডের পর যুগান্তকারী আবিষ্কার বর্ধমানের শিক্ষকের

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: দেশ জুড়ে ক্রমশ বাড়তে থাকা ধর্ষণ, যৌন নিগ্রহের ঘটনায় কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে দেশের নানা মহলে।দোষীদের কঠোর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে সোচ্চার হওয়ার পাশাপাশি আইন শৃঙ্খলা সুদৃঢ় করার দাবিও উঠে এসেছে। কিন্তু বিকৃত কাম, বিকৃত মানসিকতাকে রোধ করতে মেয়েদের নিজেদের সুরক্ষার ব্যবস্থা নিজেকেই করতে হবে, এমনটাই মনে করেছেন অনেকে। আর সেই কথা মাথায় রেখেই বর্ধমানের এক শিক্ষক আবিস্কার করে ফেলেছেন একটি বিশেষ ধরনের জুতো যা সংকটকালে মেয়েদের কাজে লাগতে পারে।

পূর্ব বর্ধমানের একটি পলিটেকনিক কলেজের শিক্ষক এই বিশেষ জুতোটি আবিষ্কার করেছেন। বেশ কিছু দিন ধরে ভাবলেও সম্প্রতি হাথরাস কান্ডের ভয়াবহতা তাঁর টনক নড়িয়ে দিয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। গুসকরার গোবিন্দপুর সেফালি মেমোরিয়াল পলিটেকনিক কলেজের ল্যাবরেটরি অ্যাসিস্ট্যান্ট সৈয়দ মোশারফ হোসেন জানিয়েছেন, হাথরাস কাণ্ডের পরই কিভাবে মহিলাদের ওপর যৌন হেনস্থার ঘটনা আটকানো যায়, কিংবা তাঁদের ওপর আচমকা যে ধরণের আক্রমণের ঘটনা ঘটে তার থেকে কিভাবে তাঁরা রক্ষা পেতে পারেন তা নিয়ে তিনি ভাবনাচিন্তা শুরু করেন। আর তারপরেই তিনি আবিষ্কার করে ফেলেন বিশেষ ধরনের এই জুতো।

জানা যাচ্ছে, এই জুতোর মধ্যে থাকছে বিশেষ ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস। জুতোয় থাকছে সুইচ। যখনই কেউ আক্রান্ত হবেন সঙ্গে সঙ্গে সুইচ অন করলেই সেখান থেকে নির্দিষ্ট ৫টি ফোন নাম্বারে একসঙ্গে বিপদসূচক বার্তা পৌঁছে যাবে। এর ফলে জুতোর সুইচ চাপলেই খানিকটা নিরাপত্তার আশ্বাস পেতে পারবেন মহিলারা।

বস্তুত এর আগেও মহিলাদের সুরক্ষার জন্য একাধিক এই ধরনের আবিস্কার হয়েছিল। বিশেষ কোনো মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে বিপদকালীন বার্তা পাঠানোর ব্যবস্থাও করা হয়েছিল। হায়দ্রাবাদের এক তরুণও জুতোর মধ্যে বিশেষ ডিভাইস বসিয়ে নয়া আবিষ্কার করেছিলেন। তবে সেখান থেকে এসওএস পাঠানোর কোনও ব্যবস্থা ছিল না।

মোশারফ হোসেনের এই আবিষ্কারে একাধিক সুবিধা রয়েছে।প্রথমত আততায়ী আক্রমণ করার সঙ্গে সঙ্গে প্রতি ২ সেকেণ্ড অন্তর এই ডিভাইসের মাধ্যমে ১২০০ ভোল্টের বিদ্যুত পরিবাহিত হবে তার শরীরে। স্বাভাবিকভাবেই তার দ্বারা আততায়ী ছিটকে পড়তে পারেন। একইসঙ্গে আধুনিক জিপিএস পদ্ধতির মাধ্যমে ঘটনাস্থলের পূর্ণ বিবরণ পৌঁছাবে প্রতি ৩০ সেকেণ্ড অন্তর ৫টি মোবাইল নম্বারে।কোথায় মহিলা আক্রান্ত হচ্ছেন সে ব্যাপারে প্রায় পূর্ণ বিবরণ থাকছে ওই টেক্সট মেসেজের মাধ্যমে। মোশারফ হোসেন জানিয়েছেন, ইতিমধ্যেই তিনি তাঁর এই আবিষ্কারের জন্য পেটেন্টের দাবি জানিয়েছেন ডবলু বি এস সি এস টিতে।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close