রাজ্য

উলটপুরাণ! হুগলিতে শাড়ি পড়ে জগদ্ধাত্রী প্রতিমা বরণ করলেন পুরুষরা

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: দুর্গা হোক, কালী হোক কিংবা জগদ্ধাত্রী, যে কোনো পুজোতেই শেষ বেলায় মাকে বরণের ভার থাকে মেয়েদের উপর। পানাপাতা আলতা সিঁদুরে বরণ করে মাকে বিদায় দেন বিবাহিত মহিলারা। তবে জগদ্ধাত্রী পুজোর শেষ বেলায় ভদ্রেশ্বরের দিকে তাকালে কিছুটা অন্যরকম ছবি দেখা যাবে। বিবাহিত মহিলা নয়, ভদ্রেশ্বরের জগদ্ধাত্রী পুজোর বরণ করেন পুরুষরা।

জানা গেছে, হুগলি জেলার ভদ্রেশ্বরের তেঁতুলতলায় বহুদিন ধরেই চলে আসছে এই প্রথা। অভিনব এই প্রথা অনুযায়ী জগদ্ধাত্রী প্রতিমাবরণে কোমরে শাড়ি জড়িয়ে অংশগ্রহণ করেন পুরুষরা। মঙ্গলবারও সমস্ত করোনা বিধি মেনে সেই একই ছবি দেখা গেল ভদ্রেশ্বরে। করোনা আবহে উৎসবের জৌলুস খানিক ফিকে হলেও মানুষের উন্মাদনায় অতিমারীর আঁচ লাগে নি এতটুকুও। তাই প্রাচীন এই প্রথার অনুসরণেও বাঁধা হয় নি কোভিড।

স্থানীয়দের কথা অনুযায়ী, তেঁতুলতলার এই জগদ্ধাত্রী পুজো ভদ্রেশ্বরের অন্যতম প্রাচীন এক পুজো। স্থানীয় সুর বংশের লোকেরা এই পুজোর প্রচলন করেছিলেন। কিন্তু ঘরোয়া হিসেবে শুরু হলেও পরে বারোয়ারি হয়ে যায় সুর পরিবারের জগদ্ধাত্রী পুজো। বাড়ির পুজোয় মহিলারা দেবীবরণ করতেন। কিন্তু সে সময় বারোয়ারি পুজোয় মহিলাদের বরণ করার প্রথা ছিল না। তাই স্থির হয়, পুরুষরাই মহিলাদের মতো শাড়ি পরে ওই আচার পালন করবে। সেই থেকে পুরুষদের বরণের প্রথা চলে আসছে আজও।

মঙ্গলবারও যথারীতি তেঁতুলতলার পুজোয় বরণ করেন পুরুষরা। সকাল থেকেই তার প্রস্তুতি চলছিল। বেলা গড়াতেই শুরু হয়ে যায় প্রতিমাবরণ। শাড়ি পরে পান, মিষ্টান্ন-সহ নানা অর্ঘ দিয়ে চলে সেই আচার। এ দৃশ্য দেখতে ভিড় জমিয়েছিলেন আশপাশের বহু মানুষ। তবে কোভিড বিধি মেনেই সমস্ত বিষয় পর্যালোচনা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুজো উদ্যোক্তারা।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close