রাজনীতিরাজ্য

‘মুসলমান ভাড়ায় পাওয়া যায়, এখন সাজতে হয়না’, সাম্প্রদায়িক ইস্যুতে বিস্ফোরক মহম্মদ সেলিম

মহানগর বার্তা ডেক্স : স্বাধীনতার পর থেকে যা হয়নি, বিগত আট বছরে দেশে সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা তার তুলনায় কয়েক গুন বেড়েছে। সাম্প্রতিক উদয়পুরে কাহ্নাইয়ালাল তেলিকে গলা কেটে খুনের ঘটনাতেও উত্তেজনা ছড়ায় দেশজুড়ে। বিভাজনের রাজনীতির অভিযোগ উঠছে গোটা দেশজুড়ে। এই প্রেক্ষিতেই দেশের পরিস্থিতি যথেষ্ট উদ্বেগজনক হয়ে উঠেছে বলেই মত এরাজ্যের সিপিআইএম রাজ্য সম্পাদকের।

শনিবার পশ্চিম বর্ধমানের একটি দলীয় কর্মসূচিতে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি নিজের উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেছেন ‘গান্ধীজিকে হত্যার সময় নাথুরাম গডসে খতনা করিয়েছিলেন, যাতে সবাই ভাবে গান্ধীজিকে মুসলিমরা খুন করেছে। কিন্তু সবাই তাকে ধরে ফেলে, ফলে তার পরিকল্পনা বিফলে যায়’। তিনি আরো বলেন যেভাবে ডেকরেটার্সের জিনিস ভাড়া পাওয়া যায়, তেমনি মুসলমানও ভাড়ায় পাওয়া যাচ্ছে এই বিভাজনের রাজনীতিকে উস্কে দেওয়ার জন্য। সংখ্যাগুরুর সাম্প্রদায়িকতা সবসময়েই সংখ্যালঘুর সাম্প্রদায়িকতাকে জিইয়ে রাখতে চায়।

উদয়পুরের ঘটনা নিয়ে কংগ্রেসের দাবি ওই ঘটনায় জড়িতদের একজন রিয়াজ আখতারি বিজেপি ঘনিষ্ট। এই বিষয়ে বহু ছবিও সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়। যদিও বিজেপি মুখপাত্র অমিত মালব্য এই দাবির সত্যতা অস্বীকার করেছেন। এই প্রসঙ্গ টেনেই সেলিম বলেন “৯২ সাল থেকেই আরএসএস সংখ্যালঘুদের ব্যবহার করার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে”।

তামিলনাড়ুর একটি ঘটনার কথাও তিনি উল্লেখ করেন যেখানে বিজেপি পার্টি অফিসে বোমা বিস্ফোরণে অভিযুক্তের বাড়িতে নকল দাড়ি ও ফেজ টুপি পাওয়া গেছিলো।

সেলিমের কথায় ” আমি বলছিনা যে মুসলমানরা এরকম করতে পারেনা। তবে মোদির যুগে এই বিপদ বেড়েছে এই কারণেই যে এখন আর কাউকে মুসলমান সাজতে হয়না, মুসলমান ভাড়ায় পাওয়া যায় এরকম ঘটনা ঘটানোর জন্য”।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close