বিনোদন

“মাদক কান্ডে দোষী নন রিয়া চক্রবর্তী”, জামিনের পর বলল মুম্বাই হাইকোর্ট

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক:  মাদক কান্ডে দোষী নন অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী, এমনটাই জানিয়ে দিল মুম্বাই হাইকোর্ট। এদিন একটি বিবৃতি দিয়ে আদালতের তরফে ব্যাখা করা হয় কেন মাদক মামলায় রিয়া নির্দোষ। এনসিবির দাবি উড়িয়ে দিয়ে জানানো হয় শুধু মাত্র ড্রাগ কেনার জন্য টাকা দিলেই কেউ ড্রাগ সংক্রান্ত অপরাধে অপরাধী হয়ে যায় না। বুধবার রিয়া চক্রবর্তীর জামিনের পর মুম্বাই হাইকোর্টের তরফে এই ব্যাখ্যা দেওয়া হয়।

দীর্ঘ আঠাশ দিন জেলে থাকার পর অবশেষে বুধবার রিয়া চক্রবর্তীর জামিন মঞ্জুর করা হয়েছে। প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, নিষিদ্ধ মাদক দ্রব্য ক্রয় বিক্রয়ের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন তিনি। অভিনেতাকে নিয়মিত ড্রাগ নিতে তিনিই সাহায্য করতেন। এদিন রিয়া চক্রবর্তীর জামিনের পর মুম্বাই হাইকোর্ট এনসিবির এই অভিযোগকে উড়িয়ে দেয়। বলা হয়, সুশান্ত সিং রাজপুতকে ড্রাগ কেনার টাকা দিতেন রিয়া। কিন্তু তার মানেই যে তিনি নিষিদ্ধ চক্রের সঙ্গে যুক্ত, এমন অভিযোগ ভিত্তিহীন, অমূলক। কাউকে ড্রাগ কেনার টাকা দিলেই কেউ অপরাধী হয়ে যায় না বলেও জানিয়েছে আদালত।

নারকোটিকস ড্রাগস অ্যান্ড সাইকোট্রপিক সাবস্ট্যান্সেস বা এনডিপিএস আইনের ২৭এ নম্বর ধারাটি উল্লেখ করে ব্যাখ্যা করে আদালত। এই ধারা অনুযায়ী কোনো ভাবেই রিয়া চক্রবর্তীকে দোষী বলা যায় না বলে জানায় তারা। বস্তুত, এনডিপিএস আইনের ২৭এ নম্বর ধারাটিতে অবৈধ লেনদেনের অর্থায়ন এবং সংশ্লিষ্ট অপরাধীকে আশ্রয় দেওয়ার অপরাধের শাস্তির কথা বলা আছে। রিয়া চক্রবর্তীর ক্ষেত্রে এই অভিযোগই খারিজ করে আদালত।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত জুন মাসে জনপ্রিয় বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করা হয় তাঁর বান্দ্রার ফ্ল্যাট থেকে। এই আকস্মিক মৃত্যুর পরই তোলপাড় শুরু হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। ঘটনার আকস্মিকতা জন্ম দেয় একাধিক বিতর্কের। এমনকি আদেও এই মৃত্যু আত্মহত্যা কিনা তা নিয়েও সন্দিহান হয় নেটিজেনের একাংশ। এমতাবস্থায় অভিনেতার বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী ও তাঁর ভাই শৌভিক চক্রবর্তীকে মাদক মামলায় জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার করে নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরো। প্রায় একমাস পর ব্যক্তিগত একলক্ষ টাকার বন্ডে স্বাক্ষর করে জামিন পান রিয়া। কিন্তু তাঁর ভাই এখনও আছেন জেলেই।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close