খবরদেশ

মোদীর জন্মদিন মানে ‘জাতীয় বেকারত্ব দিবস’, কটাক্ষের বন্যায় ভাসল সোশ্যাল মিডিয়া

মহানগর বার্তা ডেস্ক: স্বাধীনতার ৭৫তম বর্ষ উদযাপনের বছরেই ৭২ বছরে পা দিলেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী(Narendra Modi)। শনিবার বিশ্বকর্মা পুজোর আবহেই দেশজুড়ে পালিত হচ্ছে মোদীর(Narendra Modi)জন্মদিন। দিকে দিকে শুভেচ্ছায় ভরছেন ভারতের রাষ্ট্রপ্রধান। কিন্তু বাংলায় ‘বিশ্ব-অকর্মার জন্মদিনে’ শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন কেউ কেউ! বিশেষত, তৃণমূলের একাধিক নেতা সোশ্যাল-দুনিয়ায় জানিয়েছেন এমন শুভেচ্ছাবার্তা। তৃণমূল মুখপাত্র দেবাংশু ভট্টাচার্য ফেসবুকে লিখেছেন, “বিশ্বকর্মার পুজো এবং বিশ্ব অকর্মার জন্মদিন। যাইহোক, শুভ জন্মদিন সাহেব! সুস্থ থাকুন।” রাজনৈতিক আবহে এইরকম শুভেচ্ছাবার্তা নজিরবিহীন বলেই মনে করছেন অনেকে।

সূত্র: দেবাংশু ভট্টাচার্য ফেসবুক পেজ

আর এখানেই দেশজুড়ে উঠে এসেছে আর এক গুরুত্বপূর্ণ দিক। মোদীর জন্মদিনকে ‘জাতীয় বেকারত্ব দিবস’ হিসেবে পালন করছে কংগ্রেস। ভারতে দিন দিন বেকারের সংখ্যা বাড়া এবং দেশের অর্থনীতির অবনমন ইস্যুতে সোশ্যাল মিডিয়াকে কাজে লাগিয়ে প্রচারে নেমেছেন রাহুল গান্ধী, সোনিয়া গান্ধীরা। টুইটারে ট্রেন্ডিং ‘ন্যাশনাল আনএমপ্লয়মেন্ট ডে’। অর্থাৎ প্রধানমন্ত্রীর(Narendra Modi) জন্মদিনকে রাজনৈতিকভাবে কাজে লাগাচ্ছে কংগ্রেসও। তাদের তরফে দীর্ঘ পথের ‘ভারত জোড়ো যাত্রা’র অষ্টম দিনে রাহুল গান্ধী মন্তব্য করেন, ”দেশ গত ৪৫ বছরের ইতিহাসে সর্বাধিক বেকারত্বের মুখোমুখি হয়েছে। যা নরেন্দ্র মোদী সরকারের ব্যর্থতা। কোটি কোটি যুবকের হাতে আজ কাজ নেই। তাঁরা পরিবার চালাতে পারছেন না।”

প্রসঙ্গত, ‘সেন্টার ফর মনিটরিং অফ্ ইন্ডিয়া’র সাম্প্রতিক একটি রিপোর্ট বলছে, গত ফেব্রুয়ারি-মার্চে দেশের বেকারত্বের হার হয়েছে প্রায় ৯.২২ শতাংশ। যা এপ্রিলে খানিকটা কমে ৮.২৮ শতাংশ হয়েছে। দেশজুড়ে প্রায় ৩৯১ মিলিয়ন বেকার রয়েছেন। শিক্ষার পরেও চাকরি নেই। যা করোনা আসার পরে আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। চাকরি হারিয়েছেন বহু। কর্মী ছাঁটাই হয়েছে একের পর এক কোম্পানিতে। ঠিক এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে এ রাজ্যেও বেকারদের অবস্থা নিয়ে বিরোধিতায় সরব হয়েছে বাম, বিজেপি, কংগ্রেস।

আরও পড়ুন : ‘চা, ঝালমুড়ি, ঘুগনি নিয়ে বেরিয়ে পড়ুন, পুজোয় বিক্রি করেও শেষ হবেনা’, পরামর্শ মমতার

শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি, চাকরি নেই; ইস্যুতে সরব হতে দেখা গিয়েছে তাদের। ঠিক এই পরিস্থিতিতে দেশের সামগ্রিক অর্থনীতি এবং বেকার ইস্যু, কর্মসংস্থান-ইস্যুকে মোদীর জন্মদিনে সামনে আনা, রাজনৈতিকভাবে যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন অনেকেই।

সবার খবর সঠিক খবর পড়তে চোখ রাখুন মহানগর বার্তায়

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close