দেশ

‘গত আট মাসে ৮০ কোটি মানুষের পেটের ভাত জুগিয়েছে কেন্দ্র সরকার’, দাবি নরেন্দ্র মোদির

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্কঃ করোনা পরিস্থিতিতে দীর্ঘদিন লকডাউনে বিপর্যস্ত ভারতের অর্থনীতি। কাজ হারিয়ে বেকার হয়েছেন বহু মানুষ। তাঁর মাঝেই এক আন্তর্জাতিক সংস্থার সামনে প্রধানমন্ত্রীর দাবি, গত সাত-আট মাস ধরে তিনি বিনামূল্যে রেশন দিচ্ছেন দেশবাসীকে। শুক্রবার একটি অনুষ্ঠানে এই দাবি করেছেন তিনি।

শুক্রবার রাষ্ট্রসংঘের খাদ্য এবং কৃষি সংগঠন (FAO)-এর সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক স্থাপনের ৭৫ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। এই অনুষ্ঠানে তিনি ৭৫ টাকার একটি স্মারক মুদ্রার উদ্ধোধন করেন। সেখানেই তিনি জানিয়েছেন ভারতবাসীকে রেশন দেওয়ার কথা।

প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, “করোনা ভাইরাসের সংকটকালে বিশ্ব জুড়ে খাদ্য সংকট এবং অপুষ্টি সমস্যা নিয়ে চর্চা শুরু হয়েছে। দেশের প্রায় ৮০ কোটি দরিদ্র মানুষকে ভারত সরকার গত সাত-আট মাস ধরে বিনামূল্যে রেশন দিয়ে চলেছে।” শুধু তাই নয়, এই সংকটের সময় ভারত জুড়ে তাঁর সরকার প্রায় ১.৫ লাখ কোটি টাকার শস্যদানা বিলি করেছে বলেও এদিন দাবি করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

ভারতের করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলা করে অর্থনীতিকে সক্রিয় রাখতে কেন্দ্রীয় সরকার আরো কি কি ব্যবস্থা নিয়েছেন, অনুষ্ঠানে তাও জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। “অপুষ্টি নিয়ন্ত্রণের জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে ভারতে। এমন কিছু কিছু শস্যের চাষ করা হচ্ছে যার মধ্য প্রোটিন, আয়রন, জিঙ্ক প্রভৃতি পদার্থ উচ্চ হারে পাওয়া যায়।” বলেন তিনি।

এছাড়া, এবছরের নোবেল শান্তি পুরস্কারটি যে খাদ্যের বিষয়ে দেওয়া হচ্ছে তা নিয়েও সন্তোষ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁর কথায়, “এই বিষয়ে আমাদের অবদান ও সহযোগিতা ঐতিহাসিক, সে ব্যাপারে ভারত খুশি।”

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, করোনাকালে ভারতের জিডিপি নিম্নগামী। জিডিপির যে পতন সাম্প্রতিক কালে হয়েছে তা ইতিহাসে নজিরবিহীন। এ নিয়ে আজ সকালেই প্রধানমন্ত্রীকে খোঁচা দেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। ভারতের জিডিপির হার প্রতিবেশী দেশগুলোর চেয়েও নীচে। এই পরিস্থিতিতেই আন্তর্জাতিক সংস্থার সামনে ভারতের করোনাকালীন অর্থনীতি মোকাবিলায় সরকারের নানা উদ্যোগ উল্লেখ করলেন প্রধানমন্ত্রী।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close