আন্তর্জাতিক

প্রথম মহিলা ভাইস প্রেসিডেন্ট! ঘরের মেয়ে কমলার সাফল্যে উচ্ছ্বসিত তামিলনাড়ুর গ্রাম

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: কমলা হ্যারিস। তাঁকে বলা হচ্ছে আমেরিকার প্রথম ‘রঙিন মহিলা’। আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম মহিলা ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত কমলা হ্যারিস। আর তাই ‘ঘরের মেয়ে’ কমলার সাফল্যে আনন্দে ভাসছে তামিলনাডুর থুলাসেন্দ্রাপুরম গ্রাম।

বস্তুত, আমেরিকার নতুন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের মা শ্যামলা গোপালন হ্যারিস ছিলেন তামিলনাড়ুর মেয়ে। সেই সূত্রে কার্যত তামিলনাড়ুর ঘরের মেয়ে কমলা হ্যারিস। তাই সুদূর মার্কিন মুলুকে কমলার সাফল্যে উচ্ছসিত তাঁর আদি গ্রামের বাসিন্দারা। এদিন দেখা গেছে, গ্রাম জুড়ে রঙ্গোলি দিচ্ছেন মহিলারা। কমলার জয়ে আনন্দে অংশীদার তাঁরাও। গ্রাম জুড়ে যেন উৎসবের আমেজ।

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক দলের সাফল্যের পর ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলার মুখেও অবশ্য শোনা গেছে ভারতীয় মূলের কথা। তিনি জানিয়েছেন মা শ্যামলা গোপালনের কাছে তিনি কৃতজ্ঞ। “যখন ১৯ বছর বয়সে মা ভারত থেকে এখানে এসেছিলেন, তখন তিনি সম্ভবত এই মুহূর্ত কল্পনাও করতে পারেননি। কিন্তু তিনি বিশ্বাস করেছিলেন আমেরিকার ওপর, যেখানে এসব সম্ভব।” শুধু তাই নয়, কমলা হ্যারিস যে নিজের ভারতীয় যোগ ভোলেননি কখনোই, তাঁর আত্মকথা থেকেই তা জানা যায়। সেখানে তিনি লিখেছেন, “শ্যামলা গোপালন হ্যারিসের মেয়ে– এই পরিচয়টুকুর থেকে বড় কোনও সম্মান পৃথিবীতে হতে পারে বলে আমি বিশ্বাসই করি না।”

আমেরিকার প্রথম মহিলা ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের জন্ম হয় ১৯৬৪ সালে আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার ওকল্যান্ডে। তাঁর বাবার নাম ডোনাল্ড হ্যারিস। ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচিত হয়ে ৫৬ বছর বয়সী কমলা জানিয়েছেন, “আমি হোয়াইট হাউসের ইতিহাসে প্রথম মহিলা হতে পারি, কিন্তু শেষ নই।”এর আগে ক্যালিফোর্নিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেলের দায়িত্ব পালন করেছেন কমলা হ্যারিস। এহেন ঘরের মেয়ের সাফল্যে নিঃসন্দেহে গর্বিত তামিলনাড়ুর গ্রাম।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close