খবরদুনিয়া

রেকর্ড গড়লেন নবীন, এক ধাক্কায় ৫৭ হাজার অস্থায়ী কর্মীকে স্থায়ী করল উড়িষ্যা সরকার

মহানগর বার্তা ডেস্ক: আর চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ নয়, এবার যা হবে স্থায়ী। প্রায় ৫৭০০০ ঠিকা শ্রমিকের সুদিনের স্বপ্ন পূরণ করে ঘোষণা করলেন উড়িষ্যার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়ক। শনিবার রাজ্যের সরকারের এই সিদ্ধান্তের কথা জানান বিজু জনতা দলের প্রধান।

প্রসঙ্গত, আজ রবিবার ৭৭ বছরে পা দিলেন তিনি। আজ উড়িষ্যার মুখ্যমন্ত্রীর জন্মদিন। শনিবার জগন্নাথের রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী জানান, ‘আজ আমি ঘোষণা করতে পেরে আনন্দিত যে রাজ্য মন্ত্রিসভা নিয়োগের চুক্তি প্রথা বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আজও, অনেক রাজ্যে স্থায়ী পদে নিয়োগ করা হচ্ছে না। এখনও চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ ব্যবস্থা চালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু ওড়িশায় চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের যুগ শেষ হয়ে গেল।’ যে ঘোষণার সঙ্গেই রেকর্ড গড়ল ওই রাজ্যের সরকার। আর্থিক টানাপড়েন নিয়ে প্রশ্নের মধ্যেই সাহসি সিদ্ধান্ত নিলেন নবীন। এই ঘোষণায় প্রায় ৫৭ হাজার পরিবারের কমপক্ষে ২ লাখ মানুষ উপকৃত হলেন। যাঁরা এতদিন সরকারের হয়ে চুক্তিভিত্তিক কাজ করতেন। সরকারি তেমন কোনও সুবিধা ছিল না ওই ৫৭ হাজারের জন্য। এবার থেকে তাঁরাও স্থায়ী কর্মী হলেন। ২০১৩ সাল থেকে এই ধরনের নিয়োগ শুরু হয়। এদিন নবীন বলেন, ‘এটি আমার জন্য একটি কঠিন সিদ্ধান্ত ছিল। এখন আমাদের অর্থনীতির উল্লেখযোগ্য উন্নতি হয়েছে। দেশের উন্নয়নের ক্ষেত্রে ওড়িশা নতুন পরিচয় তৈরি করেছে। গত বছর থেকে আমরা চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের পদগুলিতে স্থায়ী নিয়োগের প্রক্রিয়া শুরু করেছি।’

চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ বন্ধ করার বিজ্ঞপ্তি রবিবারই জারি হবে। একথা জানিয়ে উড়িষ্যার মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘সরকার প্রতি বছর এ জন্য বাড়তি ১৩০০ কোটি টাকা ব্যয় করবে। এই সিদ্ধান্ত ওই কর্মচারী ও তাঁদের পরিবারের জন্য দীপাবলির আগাম শুভেচ্ছা।’

নবীনের এই সিদ্ধান্তের পর স্বাভাবিকভাবেই চাপ বাড়ল অন্যান্য রাজ্যের সরকারের। কেন্দ্রের বাড়ল অস্বস্তিও। এবার এই পথে হাঁটবেন কারা? প্রশ্ন উঠছে তা নিয়েও।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close