আন্তর্জাতিক

বিদেশের মাটিতে সংস্কৃতে শপথ! চমকে দিলেন নিউজিল্যান্ডের সাংসদ

মহানগরবর্তা ওয়েবডেস্ক: সংস্কৃত। বিশ্বের প্রাচীনতম ভাষাগুলির মধ্যে অন্যতম। দক্ষিণ এশিয়া তো বটেই, এমনকি পাশ্চাত্য জগতের ল্যাটিন , গ্রিকের মতো ভাষার সমসাময়িক বলে মনে করা হয় সংস্কৃতকে। ইংরেজির দাপটে প্রাচীন ভাষাগুলি যখন প্রায় বিলুপ্ত হতে বসেছে, প্রাচ্য ঐতিহ্য সংস্কৃতি যখন ম্লান হয়ে যাচ্ছে পাশ্চাত্যের জৌলুসের কাছে, ঠিক সেই সময়েই বিশ্বের দরবারে সংস্কৃত ভাষার মহিমা প্রচার করলেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত এক বিদেশী সাংসদ।

নিউ জিল্যান্ডের নির্বাচনে লেবার পার্টির সাংসদ হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত গৌরব শর্মা। বুধবার ছিল তাঁর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান। আর সেখানেই মঞ্চে উঠে সকলকে চমকে দিলেন তিনি। ইংরেজি নয়, শপথ গ্রহণ করলেন সংস্কৃতে। তাঁর এই অভিনব উদ্যোগ মুগ্ধ করেছে ভারত সহ দক্ষিণ এশিয়ার দেশ গুলিকেও।

নিউজিল্যান্ডে বসবাসকারী ভারতীয় বংশোদ্ভূতদের শিকড়ের কথাই যেন শপথ গ্রহণের মধ্যে দিয়ে স্মরণ করালেন হ্যামিলটন ওয়েস্টের সাংসদ। তাঁর কথায়, “দেশে থাকাকালীন গ্রামের স্কুলে খুব কম দিনই পড়েছিলাম সংস্কৃত। ৩৫০০ বছরের পুরনো ভাষা সংস্কৃত। মনে করা হয় ভারতের সব ভাষার জননী এই ভাষা। এই ভাষাকে সম্মান জানালাম।”

তবে সংস্কৃতে শপথ গ্রহণকে কেন্দ্র করে সোশাল মিডিয়ায় একাধিক প্রশ্নের মুখোমুখিও হতে হয়েছে সাংসদ গৌরব শর্মাকে। ভারতীয় বংশোদ্ভূত গৌরবকে নেটিজেনদের প্রশ্ন হিন্দি থাকতে কেন সংস্কৃতকে শপথ গ্রহণের জন্য বেছে নিলেন তিনি? গৌরব শর্মার ট্যুইট করেছেন, “আমিও এনিয়ে ভেবেছি। আমার ভাষা পাহাড়িতে শপথ নিতে পারতাম। গুরুমুখী ভাষায় নিতে পারতাম। সাবইকে খুশি করা সম্ভব ছিল না। তাই মনে হল সংস্কৃতে শপথ নিলে সব ভারতীয় ভাষাকে সম্মান জানানো যাবে।”

উল্লেখ্য, বিদেশের মাটিতে দাঁড়িয়ে সংস্কৃতে শপথ গ্রহণ নতুন নয়। এর আগে সুরিনামের প্রেসিডেন্ট চন্দ্রিকাপ্রসাদ শপথ নিয়েছিলেন সংস্কৃতে।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close