মহানগর

বড়ো খবর: দুর্গাপুজোয় প্যান্ডেলে ঢুকতে পারবেন না কোনও দর্শনার্থী, রায় হাইকোর্টের

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্কঃ এবারের পুজোয় কার্যত দর্শক শূন্য থাকবে রাজ্যের ছোটো বড়ো সমস্ত পুজো মন্ডপ, সোমবার এমনটাই নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। হাইকোর্টের তরফে করোনা পরিস্থিতিতে দুর্গাপুজো আয়োজনের মামলার রায়ে হাইকোর্ট জানিয়েছে, কোনো পুজো মন্ডপেই একসাথে ১৫ থেকে ২৫ জনের বেশি মানুষ প্রবেশ করতে পারবেন না। এছাড়া ভিড় নিয়ন্ত্রণের জন্য নিয়মিত সচেতনতা অভিযানও চালাতে হবে প্রশাসনকে।

সোমবারই রাজ্যে করোনা পরিস্থিতিতে দুর্গাপুজো আয়োজন নিয়ে জনস্বার্থ মামলার রায় দিয়েছে হাইকোর্ট। এ বিষয়ে বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়েছে, “”রাজ্যের ছোটো, বড় সমস্ত পুজো প্যান্ডেলই নো এন্ট্রি বাফার জোন, প্যান্ডেল এরিয়ায় থাকবে ব্যারিকেড। লেখা থাকবে নো এন্ট্রি জোন। মণ্ডপে একসঙ্গে ১৫ থেকে ২৫ জনের বেশি নয়।” বিচারপতি এ বিষয়ে ভার্চুয়াল পুজো পরিক্রমার উপর বেশি জোর দিয়েছেন। তাঁর মতে, “শহরে যেমন মার্কেটে ভিড় হচ্ছে, সেটার পুনারাবৃত্তি হতে দেওয়া যায় না। ভার্চুয়াল কভারেজ করা যেতে পারে। সাধারণ দর্শক ভার্চুয়াল দেখবেন। জনস্বার্থে সব প্যান্ডালে নো এন্ট্রি জোন করতে হবে। এমনকি ছোট প্যান্ডেলে ৫ মিটার দূরত্ব, বড় ক্ষেত্রে ১০ মিটার দূরত্ব রাখতে হবে। প্যান্ডেলের এরিয়া ব্যারিকেড করতে হবে। সেখানে NO ENTRY লিখে দিতে হবে। একটি তালিকা তৈরি করতে হবে। তাতে কমিটির যাঁদের নাম থাকবে, তাঁরা ছাড়া বাইরের কেউ আসবেন না। তাঁদের নাম তালিকা আগে থেকে দিতে হবে। রাজ্যের যে ৩৪ হাজার পুজো কমিটি অনুদান নিয়েছে এই নিয়ম সকলের জন্য প্রযোজ্য।”

চূড়ান্ত রায় দানের পূর্বে হাইকোর্টের বিচারপতি যে পর্যবেক্ষণের কথা জানিয়েছিলেন তাতেই এমন সিদ্ধান্তের ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছিল। পর্যবেক্ষণে তিনি বলেছিলেন, ২ থেকে ৩ লাখ মানুষের ভিড় সামলাতে রয়েছেন মাত্র ৩০ হাজার পুলিশকর্মী। এটা বাস্তবসম্মত নয়। এ বিষয়ে সরকারের আরো তৎপর হওয়া উচিত ছিল বলেও এদিন মন্তব্য করেন হাইকোর্টের বিচারপতি। এরপরই এ বিষয়ে সমস্ত দিক বিবেচনা করে চূড়ান্ত রায় দেয় আদালত। তাতে ইঙ্গিত মতোই দর্শকশূন্য পুজোর নির্দেশ দেওয়া হল হাইকোর্টের তরফ থেকে।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close