fff
টেকনলজি

Nokia: পুরোনো ফোন ফিরে এল নতুন চমকে, বাজারে নতুন ক্যামেরা লুক নিয়ে তৈরী Nokia 110

নোকিয়া (Nokia) মানেই নস্টালজিয়া। বিশেষ করে যাঁদের বয়স পঞ্চাশের আশেপাশে বা তারও বেশি, সেই সমস্ত মানুষদের অনেকেরই জীবনের প্রথম মোবাইল হ্যান্ডসেট ছিল নোকিয়া (Nokia)। তখন ফোনেতে ইন্টারনেটের ব্যাপার ছিল না। দেখতে আনস্মার্ট, ওজন বেশি এবং মোটা সেই ফিচার ফোন আজও মিস করেন বহু মানুষ। সে সময় মোবাইল হ্যান্ডসেটের দুনিয়ায় একচেটিয়া নোকিয়ার (Nokia) রাজত্ব ছিল। কিন্তু স্মার্টফোন আসতেই ধীরে ধীরে ছবিটা বদলে যায়। স্যামসাং, এলজির কাছে পিছিয়ে পড়তে শুরু করে নোকিয়া। আর এখন তো রেডমি, ওয়ান প্লাস, আইফোন, ভিভো, ওপো’র রমরমা বাজার। তবে গত কয়েক বছর ধরেই নিজের মেকওভার করে আবার মোবাইল হ্যান্ডসেটের বাজারে ফিরে এসেছে নোকিয়া। এখন অ্যান্ড্রয়েড (Android) স্মার্টফোনের পাশাপাশি তারা নিয়ে আসছে একের পর এক ৪জি ফিচার ফোন. দামে সস্তা তো বটেই, সেইসঙ্গে যাঁরা বয়স্ক, স্মার্ট ফোন ঠিক অপারেট করতে পারেন না, তাঁদের পক্ষে নোকিয়া ১১০ (Nokia 110) সিরিজের ৪জি ফিচার ফোনগুলো অন্যতম সেরা।

এবার আর একটা নতুন ফিচার ফোন নিয়ে এল নোকিয়া (Nokia)। নোকিয়া ১১০ (২০২২) এই মডেলের ফিচার ফোনটি সেই পুরনো দিনের কথা মনে পড়িয়ে দিতে পারে। এর ডিজাইন আগেকার মতো। তবে সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে অনেক নতুন ফিচার্স এতে ইনক্লুড করা হয়েছে। উল্লেখ্য গত বছর নোকিয়া ১১০ ৪জি ফিচার ফোন এনেছিল ভারতের বাজারে।

নোকিয়া ১১০ (২০২২) ফিচার ফোন শুক্রবার থেকেই ভারতে বিক্রি শুরু হয়েছে। এর অন্যতম সেরা বৈশিষ্ট্য হল অটো কল রেকর্ডিং সিস্টেম। সেই সঙ্গে ফিচার ফোন হলেও আনস্পেসিফায়েড রিয়ার ক্যামেরা আছে। নোকিয়ার (Nokia) ফোনে বরাবরই ব্যাটারি ভালো হয়। নোকিয়া ১১০ (২০২২) ফিচার ফোনে 1,000 mAh ক্যাপাসিটির ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে। সেইসঙ্গে মাইক্রো এসডি কার্ড ব্যবহার করে এর স্টোরেজ ক্যাপাসিটি ৩২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো সম্ভব। যেকোনও ফিচার ফোনের ক্ষেত্রে এটা নিঃসন্দেহে একটা উল্লেখযোগ্য দিক। দেখা যাচ্ছে ফিনল্যান্ডের এইচ‌এমডি গ্লোবাল কোম্পানি নোকিয়ার নতুন নতুন ফিচার হ্যান্ডসেট এনে চমকে দিচ্ছে সকলকে।

নোকিয়া ১১০ ২০২২ ফিচার ফোনে কী কী আছে?

নোকিয়া ১১০ (২০২২) ফিচার ফোনে আনস্পেসিফায়েড ইনবিল্ট রিয়ার ক্যামেরার পাশাপাশি ইনবিল্ট টর্চ থাকছে। সেইসঙ্গে মেমোরি কার্ড ব্যবহার করে ৩২ জিবি পর্যন্ত মেমোরি স্টোর করা যাবে। সংস্থার দাবি, ফোনে ৮০০০ গান ডাউলোড করতে পারবেন ব্যবহারকারী। সেই সঙ্গে এফএম রেডিও এবং আগে থেকে কিছু গেম লোড করা থাকবে। আগেই বলা হয়েছে এই হ্যান্ডসেটটির ব্যাটারি ক্যাপাসিটি 1,000 mAh। এছাড়াও ইনবিল্ট মিউজিক প্লেয়ার এবং অটো কল রেকর্ডিং ব্যবস্থা‌ও থাকছে।

নোকিয়া ১১০ (২০২২) মডেলটার ডিজাইন পুরনো ভার্সনগুলোর থেকে একটু আলাদা। এটা আপাতত তিনটি কালার কম্বিনেশনে পাওয়া যাবে- চারকোল, কেয়ন ও রোজ গোল্ড।

নোকিয়া ১১০ (২০২২) মডেলের চারকোল ও কেয়ন রংয়ের হ্যান্ডসেটের দাম ১,৬৯৯ টাকা। রোজ গোল্ড কালার কম্বিনেশন এর মডেলটির দাম সামান্য বেশি,  ১,৭৯৯ টাকা। সেইসঙ্গে ২৯৯ টাকা দামের একটি হেডফোন হ্যান্ডসেটের সঙ্গে ফ্রি দিচ্ছে নোকিয়া (Nokia)। এই নতুন ফিচার ফোনটা কিনতে হলে নোকিয়ার ওয়েবসাইট বা লিডিং ই-কমার্স সাইটগুলোর পাশাপাশি নোকিয়ার প্রধান রিটেল স্টোরগুলোতে যেতে হবে।

গতবছর জুলাইয়ে ভারতের বাজারে এসেছিল নোকিয়া ১১০ (Nokia 110) ৪জি ফিচার ফোন। ৪জি ফিচার ফোনের মধ্যে এটা ছিল অন্যতম লিডিং হ্যান্ডসেট। সেই নোকিয়া ১১০ ৪জি ফিচার ফোনের কী কী বৈশিষ্ট্য ছিল সেগুলো জেনে নেওয়া যাক-

নোকিয়া ১১০ ফিচার ফোন হলেও এতে ৪জি কানেক্টিভিটি ছিল। সেইসঙ্গে স্মার্টফোনের মতো এইচডি কলিং ফেসিলিটি এবং উইথ ওয়ার ও ওয়্যারলেস এফএম রেডিও এর মধ্যে ইনবিল্ট করা ছিল।

nokia 110 4g ফিচার ফোনে ১.৮ ইঞ্চি QVGA (১২০×১৬০) পিক্সেল ডিসপ্লে ছিল। এর অপারেটিং সিস্টেম হল Unisoc T107 SoC। এতে ১২ এমবি ব়্যাম ও ৪৮ এমবি ইন্টারনাল স্টোরেজ ছিল। তবে মাইক্রো এসডি কার্ড বা মেমোরি চিপ ব্যবহার করে ফোনের মেমোরি ৩২ জিবি পর্যন্ত বাড়িয়ে নেওয়া যায়।

নোকিয়া ১১০ ৪জি ফিচার ফোনে ০.৮ মেগাপিক্সেল QVGA রিয়ার ক্যামেরা আছে। সেইসঙ্গে ৩০ টার‌ও বেশি ইনবিল্ট অপারেটিং সিস্টেম দেওয়া ছিল। সেইসঙ্গে বেশ কিছু ইনবিল্ট মোবাইল গেমও ছিল এতে।

নোকিয়া ১১০ ৪জি ফিচার ফোনের ব্যাটারি ক্যাপাসিটি ১,০২০ mAh। এতেও ইনবিল্ট টর্চ আছে। ফোনের সঙ্গে ইউএসবি পোর্ট দেওয়া হয় মোবাইল চার্জিং এর জন্য। নোকিয়া ১১০ ৪জি ফিচার ফোনে ডুয়েল সিম ব্যবহারের সুযোগ আছে। এর ওজন ৮৪.৫ গ্রাম।

নোকিয়া ১১০ (Nokia 110) ৪জি ফিউচার ফোনটা তিনটে রঙে ভারতের মার্কেটে লঞ্চ হয়েছিল। হলুদ, কালো ও অ্যাকোয়া। দাম ২,৭৯৯ টাকা। এই ফোনের অডিও জ্যাক ৩.৫ মিমি, সেইসঙ্গে এতে অডিও ও ভিডিও প্লেয়ার আছে।

nokia 110 4g হ্যান্ডসেট নোকিয়ার নিজস্ব ওয়েবসাইট ও ই-কমার্স সাইট অ্যামাজন থেকে মূলত বিক্রি হয়।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Close
Close

Adblock Detected

Please Disable your ADBlocker!