দেশ

‘বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াই , দেশের বিরুদ্ধে নয়’ কাশ্মীর প্রসঙ্গে বললেন ওমর আবদুল্লাহ

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: জম্মু কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে কেন্দ্র সরকারের বিবাদ যেন বেড়েই চলেছে। এদিন ফের কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লাহ কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন। তিনি তাঁর বক্তব্যে স্পষ্ট করে দিলেন, তাঁদের লড়াই গোটা দেশের সঙ্গে নয়, বরং দেশের সরকারের বিরুদ্ধে। ন্যাশানাল কনফারেন্স নেতার এরূপ মন্তব্য ফের উত্তপ্ত করেছে উপত্যকা অঞ্চলের রাজনীতিকে।

সূত্রের খবর, শুক্রবারই কার্গিল অঞ্চলের স্থানীয় নেতাদের সঙ্গে দেখা করেন জম্মু ও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লাহ। সেখান থেকে বেরিয়ে সংবাদমাধ্যমের কাছে তিনি নিজের বক্তব্য পেশ করেন।তিনি বলেন, “এই দেশের বিরুদ্ধে আমাদের যুদ্ধ নয়, আমাদের যুদ্ধ বিজেপি এবং তাঁদের মতাদর্শের বিরুদ্ধে। বিজেপি মানেই দেশ নয়, আর দেশ মানেই বিজেপি নয়।” এক্ষেত্রে মূলত ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ ধারার বিলোপ সাধনের বিরুদ্ধেই প্রতিবাদ জানিয়ে মন্তব্য করেছেন ওমর আবদুল্লাহ।

জম্মু কাশ্মীর ন্যাশনাল কনফারেন্স দলের নেতা ওমর আবদুল্লাহ আরো জানিয়েছেন, “সংবিধানে যা লেখা ছিল, আমরা তাই ফেরত চাই। আমাদের এই যুদ্ধে আমরা কিছুতেই পিছু হঠবো না।” জানা গেছে, শুক্রবার জম্মু কাশ্মীরের ‘পিপলস অ্যালায়েন্স ফর দ্য গুপকার ডিক্লেয়ারেশন’ বা PAGD দলের এক প্রতিনিধি কার্গিল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স দলের নেতাদের সঙ্গে দেখা করেছেন। এই সাক্ষাতের কথা জানিয়ে ওমর আবদুল্লাহ নিজের ট্যুইটার হ্যান্ডেলে বলেছেন, “আমরা সকলেই ২০১৯ সালের ৫ই আগস্টের আগের অবস্থা ফিরে পেতে চাই। এ বিষয়ে আমরা সবাই এক জোট। ”

বস্তুত, পিএজিডি-র ওই প্রতিনিধি দলে ওমর আবদুল্লাহ ছাড়াও ছিলেন গুলাম নবি, লোন হানজুরা, নাসির আসলাম ওয়ানি, মুজাফফর শাহ এবং ওয়াহিদ পাররা। জম্মু কাশ্মীরের এই পিএজিডি জোটের প্রেসিডেন্ট হিসেবে মনোনীত হয়েছেন জম্মু কাশ্মীরের আরেক প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লাহ এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে মনোনীত হয়েছেন অপর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি। সংবিধানের ৩৭০ ধারা অনুযায়ী জম্মু কাশ্মীরের বিশেষ অধিকার ফিরিয়ে আনতে তাঁরা প্রত্যেকেই বদ্ধপরিকর। উল্লেখ্য, গত বছর আগস্ট মাসে ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ ধারা অনুযায়ী জম্মু কাশ্মীর রাজ্য যে বিশেষ অধিকার লাভ করত, তা বাতিল করে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার। তার পর থেকেই সরকারের বিরুদ্ধে এক জোট হয়ে পুনরায় আগের অবস্থা ফিরিয়ে আনতে সচেষ্ট হয়েছেন ওই রাজ্যের সমস্ত রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close