আন্তর্জাতিক

পাকিস্তানে হিন্দু মন্দির নির্মাণে সম্মতি সরকারের, বিভেদের মাঝেও সম্প্রীতির সুর

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: ভারত পাকিস্তানের কূটনৈতিক বাদানুবাদের মাঝেই সরকারের এক অভিনব সিদ্ধান্তে বিস্মিত দুই দেশ। এদিন পাকিস্তানের ধর্মীয় উপদেষ্টা মন্ত্রক দেশে একটি নতুন হিন্দু মন্দির নির্মানের অনুমতি দিয়েছে বলে জানা গেছে। সূত্রের খবর, ওই ধর্মীয় উপদেষ্টা মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, ইসলামিক আইন অনুযায়ী এতে কোনো বাধা নেই।

জানা গেছে, বেশ কিছুদিন ধরেই পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে নতুন একটি হিন্দু মন্দির নির্মাণের কাজ চলছিল। কিন্তু গত জুন মাসে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান পরিচালিত সরকার ওই মন্দির নির্মাণের কাজ বন্ধ করে দেয়। দেশের কিছু মুসলমান জনগণের ঘোর আপত্তির কারণেই পাক সরকার এহেন সিদ্ধান্ত নিয়েছিল বলে জানা গেছে। এমনকি সরকার মন্দির নির্মাণের কাজ বন্ধ না করলে বল প্রয়োগ করার হুমকিও দেওয়া হয়।

কিন্তু পাকিস্তানের ধর্মীয় উপদেষ্টা মন্ত্রক বা দ্য কাউন্সিল অফ ইসলামিক আইডিওলজি সম্প্রতি ওই মন্দির নির্মাণের কাজ পুনরায় চালু করার বিষয়ে সবুজ সংকেত দিয়েছে। পাকিস্তানের পার্লামেন্টের হিন্দু সদস্য লাল মালহি এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, বর্তমানে পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে একটিও হিন্দু মন্দির নেই। যদিও বা একটি প্রাচীন মন্দিরের কথা শোনা যায়, কিন্তু শহরের হিন্দু নাগরিকরা কেউ সেই মন্দিরে যান না। বলা বাহুল্য, তাঁরা মন্দিরে গেলে আক্রান্ত হওয়ার ভয় পান।

বর্তমানে ইসলামাবাদে বসবাসকারী হিন্দু জনগণের সংখ্যা প্রায় তিন হাজার। সাধারণত শান্তিপূর্ণ ভাবেই তাঁদের বসবাসের খবর পাওয়া যায়, কিন্তু কিছু কিছু ক্ষেত্রে কোনো হিন্দু মেয়েকে বলপূর্বক ধর্মান্তরিত করার খবরও শোনা গেছে। যদিও শোনা যায়, প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান পরিচালিত সরকার পাকিস্তানে সংখ্যালঘু সম্প্রদায় বিশেষত হিন্দুদের স্বার্থ সুরক্ষিত করতে বিশেষ ভাবে তৎপর, কিন্তু কিছু কিছু মুসলমান জনগণ তাতে বাধা দেন বারবার।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close