বিনোদন

বন্ধুর রূপ নিয়ে উপহাসের অভিযোগ, ফের নেটিজেনদের রোষের স্বীকার মীর

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্ক: সোশ্যাল মিডিয়ায় বিতর্কিত পোস্ট করে নেটিজেনদের রোষের স্বীকার হলেন মীর আফসার আলি। নিজের পরিচিত এক বন্ধু স্থানীয় ব্যক্তির ছবি পোস্ট করে এদিন মীর মজার ছলে যা লেখেন, তা ভালো চোখে দেখেন নি নেটিজেনদের একাংশ। ফলে তাঁর পোস্টের কমেন্ট বক্সে উড়ে আসতে থাকে একের পর এক ভর্ৎসনা।

https://www.facebook.com/184276174917686/posts/5089213581090563/

সোমবার নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ থেকে সায়ক হাজরা নামের এক ব্যক্তির ছবি পোস্ট করেন বাংলা টেলিভিশন এবং রেডিও জগতের বিখ্যাত ব্যক্তিত্ব মীর আফসার আলি। ছবিটির সঙ্গে তিনি লেখেন, “ইনি সায়ক হাজরা। আমার মির্চি কলিগ। আপাতত সিঙ্গেল। ‘মির্চি ভ্যাগাবন্ড সিরিজ’-এর বাপি দার স্যাঙাত। ইনি আজ বাবা মায়ের সঙ্গে পাত্রী দেখতে যাচ্ছেন। কী মনে হয়? হবে? ”

https://www.facebook.com/184276174917686/posts/5089213581090563/

এই পোস্টে প্রায় ২ হাজারের বেশি কমেন্ট করা হয়েছে।নেটিজেনদের একাংশ মজার ছলেই নিয়েছেন এই পোস্ট।কিন্তু বলা বাহুল্য, আপাতভাবে কলিগের সঙ্গে মজা করার উদ্দেশ্য নিয়ে পোস্ট করা হলেও এই পোস্টের অন্য দিকটি নজর এড়ায় নি একাংশের। অনেকেই অভিযোগ করেছেন, এই পোস্টে “বডি শেমিং” প্রচার করেছেন মীর। মানুষের চেহারার ধরণকে উপহাস করার এই পোস্ট তাই নিছক মজা হিসেবে নিতে পারেন নি নেট নাগরিকরা। মীরকে তিরস্কার করে অজস্র মন্তব্য উড়ে এসেছে পোস্টের কমেন্ট বক্সে।

কেউ বলেছেন, “অন্যের মুখ নিয়ে মজা করার আগে নিজের মুখ দেখে নিও।” আবার কেউ বলেছেন, “আপনার উপর ভগবানের আশীর্বাদ আছে। আপনি সুপুরুষ, প্রতিভাবান। এভাবে বডি শেমিং করাটা কিন্তু নৈতিক অপরাধ।” কেউ আবার মীরের পরিবার নিয়ে ব্যক্তিগত আক্রমণ করতেও রেয়াত করেন নি। শুধু ক্ষণস্থায়ী রূপ দেখে নয়, মনের পরিচয়ই যে মেয়েরা পছন্দ করেন সে কথাই মীরকে এদিন বুঝিয়ে দেন নেটিজেনরা। মীর অবশ্য নেটিজেনদের এই সমস্ত মন্তব্যের কোনো উত্তর দেন নি অথবা এখনও পর্যন্ত নিজের প্রতিক্রিয়া জানান নি।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close