দেশ

‘বাংলার মাটি বাংলার জল.. পূণ্য হোক’, পুজোর শুরুতে ভাঙা বাংলায় বার্তা প্রধানমন্ত্রীর

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: বাংলার উৎসবের আঁচ ছড়িয়ে পড়েছে গোটা দেশে, মহাষষ্ঠীর সকালে এমনটাই বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই সঙ্গে ভাঙা ভাঙা বাংলায় উচ্চারিত তাঁর বার্তায় রইল বাংলা নিয়ে একরাশ আবেগ। এদিন রাজনীতি নিয়ে কোনো মন্তব্যের ধারে কাছেও গেলেন না তিনি। পুজোর সকালে প্রধানমন্ত্রীর এই বার্তা স্বভাবতই মন জয় করেছে রাজ্যবাসীর।

বৃহস্পতিবার সকালে ভার্চুয়াল মাধ্যমে পুজোর উদ্ধোধন অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আর সেখানেই তাঁর মুখে শোনা গেল বাংলা ভাষায় বাংলার জয়গান। তাঁর কথায় একদিকে যেমন ছিল স্বাধীনতা আন্দোলনে বাংলার অবদান, তেমনই ছিল বাংলার মণীষীদের প্রতিও ছিল সম্মানজ্ঞাপন। তাঁর প্রতিটি কথাই এদিন যেন বুঝিয়ে দিচ্ছিল, বাংলার সম্পর্কে তিনি বিশেষ ভাবে চর্চা করে এসেছেন।

বস্তুত, প্রধানমন্ত্রীর এদিনের সমস্ত বক্তৃতার প্রায় ৯৯ শতাংশই ছিল বাংলার কথা। সত্যজিৎ রায় থেকে শুরু করে রাজা রামমোহন রায়,প্রফুল্ল চাকী, ক্ষুদিরাম বসু সহ বাংলার একাধিক স্বনামধন্য মানুষের কথা উচ্চারিত হল তাঁর মুখে। শুধু তাই নয়, এমনকি বাদ যায় নি ‘মায়ের দেওয়া মোটা কাপড় মাথায় তুলে নে রে ভাই’, ‘আমার সন্তান যেন থাকে দুধে-ভাতে’ থেকে শুরু করে ‘বাংলার মাটি, বাংলার জল, বাংলার বায়ু, বাংলার ফল পূণ্য হোক.. পূণ্য হোক…পূণ্য হোক হে ভগবান’। ভাঙা বাংলায় প্রধানমন্ত্রীর এই উচ্চারণ মন কেড়েছে অনেকেরই। সেই সঙ্গে তাঁর বক্তব্য, এই উৎসবের উন্মাদনাই বাংলাকে আলাদা করে চিনিয়ে দেয়।

এদিনের ভার্চুয়াল বার্তায় প্রধানমন্ত্রী এও বলেন, ”মা দুর্গার আশীর্বাদে গোটা দেশ আজ বাংলাময়।” বলা বাহুল্য, ষষ্ঠীর সকালে পশ্চিমবঙ্গের মানুষের প্রতি এহেন বার্তা ভালো চোখে দেখেননি বিরোধীরা। অনেকেই মনে করেছেন আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে বাংলায় বিজেপির আসন পাকা করারই নতুন কৌশল। কিন্তু এদিন প্রধানমন্ত্রীর বক্তৃতায় রাজনীতি নিয়ে প্রত্যক্ষভাবে কোনো বার্তা যে ছিল না তা স্পষ্ট।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close