দেশরাজনীতি

“নিজের ভাবমূর্তি বাঁচাতে ভারতের জমি চিনের হাতে তুলে দিয়েছেন মোদী”, বিস্ফোরক রাহুল

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্ক: নিজের ভাবমূর্তি বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রী চিনের হাতে দেশের জমি তুলে দিয়েছেন বলে সাংবাদিক সম্মেলনে তোপ দাগলেন প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। সংসদে সদ্য পাশ হওয়া কৃষি বিলের বিরোধিতায় আয়োজিত সমাবেশে যোগ দিতে পাঞ্জাব গিয়েছিলেন রাহুল। পাঞ্জাবের পাটিয়ালায় প্রতিবাদী কৃষকদের নিয়ে কংগ্রেসের আয়োজিত ট্রাক্টর র্্যালি শেষে সাংবাদিক সম্মেলন করেন রাহুল গান্ধী।

সাংবাদিক সম্মেলনের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ভূমিকায় ছিলেন রাহুল। সাংবাদিকদের প্রতিটি প্রশ্নের ধরে ধরে উত্তর দেন তিনি। সেখানেই রাহুল বলেন “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কেবলমাত্র তার ভাবমূর্তি নিয়েই চিন্তিত। তার জন্য তিনি চীনের হাতে প্রায় ১২০০ বর্গ কিলোমিটার জমি তুলে দিতেও পিছপা হননি।”

এদিন রাহুলের ইঙ্গিত ছিল সাম্প্রতিক লাদাখ সীমান্তে ঘটা ভারত-চিন সীমান্ত দ্বন্দ্বের দিকে। অভিযোগ চীন সেখানে আগ্রাসন ঘটিয়ে ভারতের বেশ কিছু জায়গায় নতুন করে দখল করে নিয়েছে।তার আরও বক্তব্য “চিনা আগ্রাসন বা দেশের আভ্যন্তরীণ পরিস্থিতি কোনোটাই নরেন্দ্র মোদিকে চিন্তিত করে না। তিনি কেবলমাত্র নিজের ভাবমূর্তি নিয়েই চিন্তিত।” এই প্রসঙ্গে রাহুল বলেন দেশের সমস্ত সেনা আধিকারিক থেকে শুরু করে সংবাদমাধ্যম সবাই জানে যে ভারতের জমি দখল করে নিয়েছে তিন। অথচ প্রধানমন্ত্রী তার শক্তিশালী ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হবে এই আশঙ্কায় সত্যি স্বীকার করছেন না। একই সঙ্গে চীনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থাও নিচ্ছেন না।

রাহুল সাংবাদিকদের পাল্টা প্রশ্ন করেন যে “প্রধানমন্ত্রী কেন সাংবাদিক সম্মেলন করে না?” তারপর নিজেই উত্তর দিয়ে বলেন প্রধানমন্ত্রীর চিন এবং সাংবাদিক, দুজনকে নিয়েই সমান আশঙ্কিত। কারণ এই দুজনেই তার “তথাকথিত” শক্তিশালী ভাবমূর্তিকে ধুলিস্যাৎ করে দিতে পারে। এই প্রসঙ্গে জুলাই মাসে রাহুল একটা টুইট করেছিলেন, যেখানে দাবি করেন “মিথ্যা” শক্তিশালী ভাবমূর্তি তৈরি করে ক্ষমতায় এসেছেন নরেন্দ্র মোদী। ভারতের পক্ষে তার এই “মিথ্যা” শক্তিশালী ভাবমূর্তি আজ সবচেয়ে বড় বিপদ।

রাহুল গান্ধী এদিন আরো বলেন যে দেশের কৃষকদের সমস্যা, পরিযায়ী শ্রমিকদের সমস্যা, নারী নির্যাতন কোন‌ও কিছু নিয়েই প্রধানমন্ত্রী সুস্পষ্ট উত্তর দেন না। তার কারণ এগুলো তার যত্ন করে গড়ে তোলা ভাবমূর্তিতে দাগ কাটতে পারে বলে তার ধারণা। একই সঙ্গে বিদেশি শক্তি ভারতের জমি দখল করে নিলেও তা অস্বীকার করেন প্রধানমন্ত্রী, কারণ তার ফলে সযত্নে গড়ে তোলা “স্ট্রং ম্যান” ইমেজ টোল খেয়ে যাবে।

প্রসঙ্গত, রাহুল গান্ধীর সমালোচনা করে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা বলেছেন “রাহুল গান্ধী দেশের সেনাবাহিনীর থেকে বিদেশি শত্রুদের বেশি বিশ্বাস করেন।” তবে রাজনৈতিক মহল রাহুল গান্ধীর আনা অভিযোগগুলোর মধ্যে যথেষ্ট সারবত্তা খুঁজে পাচ্ছে। তাদের অভিমত পিআর এজেন্সিকে দিয়ে গড়ে তোলা ভাবমূর্তি রক্ষার তাগিদেই বাস্তব সত্যিকে বারে বারে এড়িয়ে যাচ্ছেন নরেন্দ্র মোদি।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close