দেশরাজনীতি

“পকেট ভরাচ্ছে মোদি সরকার, ভুখা পেটে দিন কাটাচ্ছে গরিবরা”, মোদিকে আক্রমণ রাহুলের

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্কঃ বিশ্ব ক্ষুদা সূচকে ভারতের স্থান তলানিতে আসতেই এবার ফের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে একহাত নিলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। এই প্রসঙ্গে রাহুলের বক্তব্য মোদি সরকার তাঁর বিশেষ বন্ধুদের পকেট ভরাতে ব্যস্ত, তাই একদিকে ভুখা পেটে দিন কাটছে গরিবদের।

শনিবারই এই কথা হিন্দিতে টুইট করে, মোদি সরকারকে একহাত নিয়েছেন তিনি। পাশপাশি বিশ্ব ক্ষুদা সূচকের যে গ্রাফ! সেই গ্রাফ’ও তুলে ধরেছেন তিনি। সেখানেই দেখা যাচ্ছে যে, প্রতিবেশী দেশ গুলোর তুলনাতেও পিছনে পরে আছে ভারত। তালিকাতে রয়েছে পাকিস্তান এবং বাংলাদেশও। তাতেও দেখা যায় পাকিস্তান, বাংলাদেশ এবং নেপালের থেকেও পিছিয়ে রয়েছে ভারত। তবে ইনডেক্স অর্থাৎ সূচকে ভারতেরও পরে রয়েছে নাইজিরিয়া, লিবিয়া, আফগানিস্তান এছাড়াও বেশ কিছু দেশ।

প্রসঙ্গত,গত শুক্রবার প্রকাশিত হয়েছে ২০২০ সালের বিশ্ব ক্ষুধা সূচক। জানা গেছে, চলতি বছরের এই ক্ষুধা সূচকে মোট ১০৭ টি দেশের মধ্যে ৯৪ তম স্থানে রয়েছে ভারতের নাম। শুক্রবার সন্ধ্যায় আয়ারল্যান্ডের রাজধানী ডাবলিন থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে ক্ষুধা সূচকের এই রিপোর্ট প্রকাশ করে ইন্টারন্যাশানাল ফুড পলিশি রিসার্ট ইন্সটিটিউট। এতে ১০০ পূর্ণ মানের ভিত্তিতে প্রতিটি দেশকে নম্বর দেওয়া হয়। এক্ষেত্রে বেশি নম্বর পাওয়ার অর্থ হল দেশটি ক্ষুধা নিবারণে ভালো জায়গায় নেই। এই পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে, বাংলাদেশের নম্বর ২০.৪. ভারতের নম্বর ২৭.২। ভারতের আগে রয়েছে ইন্দোনেশিয়া নেপালও।

যদিও এই রিপোর্ট অনুযায়ী ক্ষুধা নিবারণে সামগ্রিক ভাবে বিশ্বের অবস্থা আগের চেয়ে ভালো। কিন্তু ৩১টি দেশের অবস্থা বিশেষ ভাবে চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে বিশেষজ্ঞদের কপালে। নতুন করে এই শোচনীয় তালিকায় নাম লিখিয়েছে ন’টি দেশ। রিপোর্টটি নাম করেই বলছে, ভারত নেপাল এবং পাকিস্তানের মতো দেশ গুলিতে, অপুষ্টি,দারিদ্র, অশিক্ষাই এই অবস্থার কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close