দেশ

“নীচু জাতকে মানুষ বলেই মনে করে না যোগী সরকার”, হাথরাস নিয়ে ফের তোপ রাহুলের

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: হাথরাস কান্ড নিয়ে উত্তর প্রদেশের বিজেপি সরকারকে ফের একবার তোপ লাগলেন রাহুল গান্ধী। এবার সমাজে তথাকথিত নিম্নবর্ণের মানুষদের অবস্থান নিয়ে ‘লজ্জাজনক সত্য’ প্রকাশ করলেন তিনি। কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি রাহুল গান্ধী রবিবার সকালে হাথরাস কান্ডের সূত্রে যোগী সরকারকে আক্রমণ করে একটি ট্যুইটে নিজের বক্তব্য জানান।

এই প্রসঙ্গে সরাসরি উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে আক্রমণ করে তিনি বলেছেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী এবং তাঁর পুলিশ প্রশাসন তথাকথিত নিম্নবর্ণের মানুষদের মানুষ বলেই মনে করেন না। শুধু তাই নয়,ভারতবর্ষের বহু মানুষই যে আদতে এই ধারণায় বিশ্বাসী সে কথাও জানিয়েছেন রাহুল গান্ধী। “অনেক ভারতীয়ই দলিত, মুসলিম কিংবা অন্যান্য উপজাতিকে মানুষ বলে মনেই করেন না, এটা অত্যন্ত লজ্জাজনক এক সত্য”, ট্যুইটে বলেন তিনি।

এরপর উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে আক্রমণ করে তাঁর বক্তব্য, ” মুখ্যমন্ত্রী এবং তাঁর পুলিশ বলেছেন হাথরাসে কোনো ধর্ষণ হয়নি, কারণ তাঁদের কাছে অন্যান্য অনেক ভারতবাসীর মতোই ওঁ( নির্যাতিতা) ‘কেউ না’।” অর্থাৎ হাথরাসের ওই নির্যাতিতা তরুণীর কোনো গুরুত্বই নেই যোগী সরকার এবং তাঁর পুলিশের কাছে, এমনটাই দাবি কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীর।

নিজের ট্যুইটার হ্যান্ডেলে হাথরাস কান্ডে ধর্ষণের বিপক্ষে পুলিশের অবস্থানের একটি রিপোর্ট শেয়ার করে উক্ত মন্তব্য করেছেন রাহুল গান্ধী। সেই রিপোর্টের ক্যাপশানে লেখা আছে, “একটি মহিলা বারংবার ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন, পুলিশ কেন তা অস্বীকার করছে?”

বস্তুত, উত্তর প্রদেশের হাথরাস গ্রামে ঘটে যাওয়া ঘটনা নিয়ে দেশ জুড়ে যে তোলপাড় শুরু হয়েছিল,তার রেশ কাটেনি এখনও। গত ১৪ই সেপ্টেম্বর ওই গ্রামের তথাকথিত নিম্নবর্ণের এক তরুণীর উপর অকথ্য অত্যাচার করে গ্রামেরই উচ্চবর্ণের কিছু মানুষ। টানা ১৫ দিন লড়াই করার পর দিল্লির সফদরজং হাসপাতালে অবশেষে মৃত্যু হয় ওই তরুণীর। ঘটনা সামনে আসতেই ক্ষোভে ফেটে পড়ে সারা দেশ। তরুণীর মৃত্যুর পরেই তাঁর মৃতদেহ গভীর রাতে চুপিসারে সৎকার করে ফেলে পুলিশ। এমনকি ওই নির্যাতিতা তরুণীর পরিবারের উপর চাপ সৃষ্টি করার অভিযোগও ওঠে পুলিশের বিরুদ্ধে।

এরপরই উত্তর প্রদেশে নারীদের অবস্থান ও আইন শৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন তুলে যোগী সরকারকে ক্রমাগত আক্রমণ করতে থাকে বিরোধী দলগুলি। সেই সূত্রেই ওই পীড়িত পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে যান বিরোধী নেতা রাহুল গান্ধীও। আজকের এই ট্যুইট সেই আক্রমণেরই আরো এক নিদর্শন।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close