গ্রিন রুমবড়ো পর্দা

“গোপনাঙ্গ দেখায়নি, অন্তর্বাস পরেছিলাম”, ন্যুড ফটোশ্যুট বিতর্কে মুখ খুললেন রণবীর

মহানগর বার্তা ডেস্কঃ ‘উলঙ্গ নয়, অন্তর্বাস পরেই ছবি তুলেছিলাম।’ এবার ‘নুড ফটোশ্যুট’ বিতর্কে মুখ খুললেন অভিনেতা রণবীর সিং। মুম্বই পুলিশকে দেওয়া বয়ানে ‘গল্লি বয়ে’র নায়ক জানান, ”ভাইরাল হওয়া সমস্ত ছবিতে অন্তর্বাস পরেই ছিলাম। একটি ছবিও উলঙ্গ অবস্থায় তুলিনি। যা দেখানো হয়েছে সেটি বিকৃত।” রণবীরের দাবি, তাঁর ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে যে ছবিগুলি তিনি পোস্ট করেছিলেন, সেগুলো বিকৃত করা হয়েছে। যদিও অভিনেতার এই দাবির পরেই অভিনেতার ভাইরাল সমস্ত ছবি ফের খতিয়ে দেখেন পুলিশ আধিকারিকরা। মেলানো হয় অভিনেতার দেওয়া তথ্যের সঙ্গেও। মুম্বই পুলিশ সূত্রে খবর, অভিনেতার দাবি সত্যি হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। আর তার ফলেই এই ঘটনায় ইতিমধ্যেই পুলিশের তরফে ‘ক্লিনচিট’ দেওয়ার চিন্তাভাবনাও শুরু করেছে মুম্বই পুলিশ।

প্রসঙ্গত, অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোনের স্বামী ‘রামলীলা’র রণবীর, ‘শমসেরা’র রণবীর কাপুরের প্রচার আলোকে ভাইরাল হন ফের। বরাবর ভিন্ন ধরনের পোশাক পরে বিতর্কের কেন্দ্রে থাকা তারকার কয়েকটি ছবি ছড়িয়ে পড়ে নেটদুনিয়ায়। যেখানে উলঙ্গ শরীর প্রদর্শন করেন অভিনেতা! যার মধ্যে কয়েকটি ছবিতে অন্তর্বাস থাকলেও বাকি একাধিক ছবিতে কিছুই পরনে ছিল না রণবীরের! এই ছবি নেটদুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই সমালোচনার ঝড় ওঠে। দেশজুড়ে একাংশের তরফে অভিনেতার বিরুদ্ধে শালীনতা ভঙ্গের অভিযোগে ওঠে। পাল্টা, বরাবর মৌলিকত্বকে সঙ্গী করা তারকার পাশে দাঁড়ান অনেকেই। এমনকি এই ইস্যুতে ভাগ হয় বলিউডও। বিদ্যা বালন, রাখি সাওয়ান্তের মতো অভিনেতারা সমর্থন করেন রণবীরকে।

যদিও এই ঘটনা শুধু সমালোচনা নয়, ক্রমেই মোড় নেয় আইনি পথেও। রণবীরের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়, মুম্বই পুলিশের কাছে। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়। আর সেই তদন্তের প্রয়োজনে এবার তলব পড়ে ‘ব্যান্ড বাজা বারাতে’র অভিনেতার। তাঁর বয়ান রেকর্ড করে পুলিশ। অভিনেতার বক্তব্যের পর মুম্বই পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, ”অভিনেতার বয়ানে বলা হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর তরফে পোস্ট করা মোট ৭টি ছবিতেই অন্তর্বাস পরনে ছিল রণবীরের। যে ছবি পিপার ম্যাগাজিনের জন্য তোলা নয়। তিনি বলেছেন, অভিযোগ অনুযায়ী, যে ছবিটিতে তাঁকে উলঙ্গ দেখানো হয়েছে। তাঁর গোপনাঙ্গ দেখানো হয়েছে, সেই ছবিগুলো বিকৃত। এই অবস্থায় ওই ফটো শ্যুট হয়নি।”

প্রসঙ্গত, বলিউডের একাধিক অভিনেতার সাহসী পদক্ষেপে প্রশ্ন ওঠে বারবার। সরব হন বলিউডেরই কেউ কেউ। সেখানে দাঁড়িয়ে রণবীর সিংয়ের উলঙ্গ ছবি ভাইরাল হতেই প্রশ্ন তুলেছিল আবার। বাড়িয়েছিল বিতর্ক। কিন্তু অভিনেতার বয়ান এবং পুলিশের পদক্ষেপে সেই বিষয়টি প্রায় মিথ্যা হিসেবে প্রমাণিত হয়েছে বলেই ধরা হচ্ছে। আর এর পরেই প্রশ্ন উঠছে, শুধুই সমালোচনা আর বিতর্ক বাড়াতেই কি ভিন্নধর্মী অভিনেতাদের অপদস্ত করার চেষ্টা চলছে নিরন্তর? এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজছে মুম্বই পুলিশও।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close