দেশ

স্বপ্নপূরণ! মায়ের নামে রাস্তার নামকরণ হল পাঞ্জাবে, বছর শেষে উচ্ছ্বসিত সোনু সুদ

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: করোনা কালে দরিদ্র অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে গোটা দেশের আশীর্বাদ পেয়েছেন সোনু সুদ। বলিউড অভিনেতার চেয়েও একজন প্রকৃত মানবদরদী হিসেবে তাঁর জনপ্রিয়তা তুঙ্গে উঠেছে। পরোপকারের নজিরে ইতিমধ্যে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতিও পেয়ে গিয়েছেন তিনি। কিন্তু তাঁর পরহিতব্রতে বিরাম আসে নি। বরং দিন দিন তাঁর সাহায্যের হাত যেন বড়ো হয়ে চলেছে আরও। সকলের ইচ্ছে পূরণ করে চলেছেন যিনি বছর শেষে পূরণ হল তাঁর ইচ্ছেও।

এবার সোনু সুদের স্বর্গীয় মায়ের নামে একটি রাস্তার নামকরণ করা হচ্ছে, এমনটাই জানা গেছে সূত্রের খবরে। বৃহস্পতিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় এই খবর নিজেই শেয়ার করেছেন অভিনেতা। জানা গেছে পাঞ্জাবে অভিনেতার নিজের শহর মোগাতেই একটি রাস্তার নাম রাখা হচ্ছে তাঁর মায়ের নামে। স্বভাবতই এতে আপ্লুত বলিউড অভিনেতা সোনু সুদ।

এদিন নিজের ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে এই খবরটি ভক্তদের সঙ্গে শেয়ার করে নিয়েছেন অভিনেতা। উক্ত রাস্তার ছবির সঙ্গে সঙ্গে একটি দীর্ঘ বার্তা লিখেছেন তিনি। তিনি লিখেছেন, “এটি একটি ছবি যা নিয়ে আমি সারাজীবন স্বপ্ন দেখেছি। আজ আমার শহর মোগার একটি রাস্তাকে আমার মায়ের নামে নামকরণ করা হল “প্রফেসর সরোজ সুদ রোড”। এই রাস্তা দিয়েই মা সারাজীবন যাতায়াত করেছেন। কলেজ গেছেন, আবার বাড়ি ফিরেছেন। আমার জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পর্ব হয়ে থাকবে এটা।”

https://www.instagram.com/p/CJdJcN5ALun/?utm_source=ig_web_copy_link

অভিনেতা আরো লিখেছেন, “আমি নিশ্চিত আজ আমার বাবা মা স্বর্গে কোথাও বসে হাসছেন। ওঁরা এটা দেখার জন্য আজ থাকলে খুব ভালো হত।” এরপর এই রাস্তার নামকরণের জন্য হারজোৎ কামাল, সন্দ্বীপ হংস, অনীতা দর্শী প্রমুখ ব্যক্তিকে ধন্যবাদ দিয়েছেন সোনু সুদ। পোস্টের শেষের সোনু সুদের বার্তা, “এবারে আমি গর্বের সঙ্গে বলতে পারি পৃথিবীতে আমার সবচেয়ে প্রিয় জায়গার নাম “প্রফেসর সরোজ সুদ রোড”।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে ভারত জুড়ে যখন লকডাউন শুরু হয়েছিল, তখন পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরাতে ব্যক্তিগত উদ্যোগ গ্রহণ করেছিলেন সোনু সুদ। সেই থেকে যে মানবসেবার সূচনা তিনি করেছেন আজও তাতে ছেদ পড়েনি। কিছুদিন আগে পাঞ্জাবের রাজ্য আইকন হিসেবেও ঘোষণা করা হয়েছিল তাঁকে। নিজের জীবনে মায়ের প্রভাব, অনুপ্রেরণা বরাবরই গর্বের সঙ্গে স্বীকার করেছেন অভিনেতা।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close