মহানগররাজনীতিরাজ্য

“আমাদের শিল্প, কারখানা, বাংলাকে বাঁচাতে হবে”, ধর্মতলার সভাস্থল থেকে বার্তা মহম্মদ সেলিমের

মহানগর বার্তা ডেস্ক : আজ ধর্মতলায় একাধিক ইস্যু নিয়ে ইনসাফ সভার ডাক দেয় বাম ছাত্র যুব সংগঠন। সকাল থেকেই কলকাতার নানা প্রান্ত থেকে বাম ছাত্র যুব কর্মীরা আসতে শুরু করেন ধর্মতলায়। আনিস হত্যা মামলা থেকে শুরু করে স্কুল সার্ভিস কমিশন দুর্নীতি, একাধিক বিষয় আজ প্রাধান্য পায় বামেদের এই সভায়। এই অনুষ্ঠানে বহু বাম ছাত্র কর্মী থেকে শুরু করে সেখানে উপস্থিত ছিলেন সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রের বহু পরিচিত মুখ। ইনসাফ সভার মঞ্চে অন্যান্যদের সাথে বক্তব্য রাখেন সিপিএম রাজ্য সম্পাদক মহম্মদ সেলিম। একাধিক বিষয় নিয়ে তিনি তীব্র আক্রমণ করেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ করে সেলিম বলেন যে, “উনি বুদ্ধি দেবেন আর আমার আপনার মা ঘুগনি করে দেবেন!” মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশাপাশি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করে সেলিম বলেন যে,” মমতা কি ভাইপো অভিষেককে বলেছিল ১০ টাকা দিচ্ছি, ঘুগনি মুড়ি নিয়ে ব্যবসা শুরু করুক!” তৃণমূলের পাশাপাশি সেলিম একযোগে কটাক্ষ করেন বিজেপিকেও। তিনি বলেন যে পশ্চিমবঙ্গে আরএসএসকে নিয়ে আসার জন্যই তৈরি করা হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। পাশাপাশি পুলিশকে আক্রমণ করে সেলিমের বক্তব্য যে রাস্তা বন্ধ করে তাদের মিছিল আটকানো যাবে না।

ইনসাফ সভার মঞ্চ থেকে সেলিমের হুঁশিয়ারি, “বর্ধমান দেখিয়ে দিয়েছে যে পুলিশেকে ঢাল করে জনতা কে আটকানো যায় না। তৃণমূলের এখন অপর নাম টাকা মারা কোম্পানি।” এছাড়াও সেলিম সভায় আগত ছাত্র যুবদের উদ্দেশ্যে বলেন যে তৃণমূলের হাত থেকে বাংলার শিল্প ,সংস্কৃতি, কারখানা ও শিক্ষাকে রক্ষা করতে হবে। তাঁর দাবি, জোর প্রতিবাদ হোক, যাতে ভবানী ভবন পর্যন্ত আওয়াজ পৌঁছে যায়। সব মিলিয়ে, মহম্মদ সেলিমের গলায় ফুটে ওঠে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে এক কঠিন বক্তব্য।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close