মহানগর

ফেসবুক পোস্ট নিয়ে সাধারণ মানুষকে হেনস্থা! কলকাতা পুলিশকে ভর্ৎসনা সুপ্রিম কোর্টের

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: আজকের দিনে সাধারণ মানুষের স্বাধীন মতামত প্রকাশের যে একটা বড়ো মাধ্যম হয়ে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়া, সেই বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই। কিন্তু আজকাল সোশ্যাল মিডিয়ায় কোনো বিতর্কিত বা সরকার বিরোধী মন্তব্য করলেই পুলিশি হেনস্থার স্বীকার হতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। তুচ্ছ বিষয়ে সাধারণ মানুষের এহেন হেনস্থা নিয়ে এদিন কলকাতা পুলিশকে ভর্ৎসনা করল সুপ্রিম কোর্ট।

জানা গেছে, সম্প্রতি রশ্নি বিশ্বাস নামক এক মহিলার ফেসবুক পোস্ট ঘিরে তৈরি হওয়া বিতর্কের সূত্রে সুপ্রিম কোর্টের নজরে আসে গোটা বিষয়। উক্ত মহিলা আদতে দিল্লির বাসিন্দা। রাজ্যে লকডাউন চলাকালীন সময়ে কলকাতার রাজাবাজার অঞ্চলে ভিড় ও বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছিলেন তিনি। নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে ওই ছবি পোস্ট করে তিনি রাজ্যে ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেস সরকারের তীব্র সমালোচনা করেন। লকডাউন পরিস্থিতিতে ভিড় ও সামাজিক দূরত্ব বিধি পালন করাতে ব্যর্থ হচ্ছে সরকার এবং পুলিশ প্রশাসন, এমনটাই দাবি করেন তিনি।

রশ্নি বিশ্বাসের ওই পোস্টকে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছিল বিতর্ক। সরকারবিরোধী ওই পোস্টের ভিত্তিতে দিল্লির ওই মহিলাকে সমন পাঠানো হয় কলকাতা পুলিশের তরফ থেকে। গত ১৩ মে রশ্নি বিশ্বাস নামে ওই মহিলার বিরুদ্ধে বালিগঞ্জ থানায় এফআইআর দায়ের করে কলকাতা পুলিশ। এরপরই কলকাতা পুলিশের ওই সমনের বিরুদ্ধে আদালতে পাল্টা আপিল করেন মহিলা। তিনি এ ব্যাপারে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন। সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড় ও বিচারপতি ইন্দিরা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চে চলতে থাকে মামলা।

বস্তুত, এই মামলার রায়ে পশ্চিমবঙ্গ সরকার ও কলকাতা পুলিসকে কড়া ভর্ৎসনা করেছে আদালত। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টের মতো তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সাধারণ মানুষকে এহেন হেনস্থার নিন্দা করা হয়েছে শীর্ষ আদালতের তরফে। আদালত জানিয়েছে, পুলিস যদি সাধারণ মানুষের বাকস্বাধীনতা কেড়ে নিতে চায়, তাহলে আগামীদিনে আদালতকে হস্তক্ষেপ করতেই হবে।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also
Close
Back to top button
Close
Close