দেশ

দীর্ঘদিনের লড়াই! এবার স্বাধীন কর্মজীবী মহিলার স্বীকৃতি পেতে চলেছে যৌন কর্মীরাও

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্কঃ যৌনকর্মীরাও এবার থেকে পেতে চলেছেন স্বনির্ভর কর্মজীবি মহিলার স্বীকৃতি, এমনটাই জানা গেছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের তরফ থেকে। একটি ১১ পাতার অ্যাডভাইসরি জারি করে কমিশনের তরফে তাতে কর্মজীবি মহিলাদের তালিকাতেই রাখা হয়েছে যৌনকর্মীদেরও। মানবাধিকার কমিশনের এহেন উদ্যোগকে কুর্নিশ জানিয়েছে বিশেষজ্ঞ মহল।

গত বুধবার, ৭ই অক্টোবর জাতীয় মানবাধিকার কমিশন এই অ্যাডভাইসরি জারি করে। কমিশন থেকে একটি ১১ পাতার দীর্ঘ অ্যাডভাইসরি জারি করা হয়েছিল বলে জানা গেছে। এই অ্যাডভাইসরির শিরোনাম ছিল ‘হিউম্যান রাইটস অ্যাডভাইসরি অন রাইটস অফ উইমেন ইন কনটেক্সট অফ কোভিড ১৯’। সেখানে যৌন কর্মীদের অন্যান্য সাধারণ কর্মজীবি মহিলার সঙ্গেই একসাথে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। এর ফলে এবার থেকে নানা প্রকল্প এবং সুযোগ সুবিধার অধিকারী হতে পারবেন যৌনকর্মীরাও।

সূত্রের খবর অনুযায়ী, ‘ ‘ন্যাশনাল নেটওয়ার্ক অফ সেক্স ওয়ার্কার্স’-এর উপদেশ মতোই নানা পরিকল্পনার বাস্তবায়ন করা হয়েছে ওই অ্যাডভাইসরিতে। বস্তুত করোনা পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষের মানবাধিকারের উপর অতিমারীর প্রভাব কেমন, তা নিয়ে সমীক্ষা চালাচ্ছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন। সেই সূত্রেই জারি হয়েছে এই অ্যাডভাইসরি। এর মাধ্যমে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের তরফ থেকে প্রতিটি রাজ্যের সরকারকে যৌনকর্মীদের বিষয়ে কিছু নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তাঁরা যেন সাধারণ কর্মজীবি মহিলাদের মতোই সুযোগ সুবিধা পান, সেই নির্দেশই দিয়েছে কমিশন।এছাড়া পরিযায়ী যৌন কর্মীদেরকেও এই তালিকাভুক্ত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

অ্যাডভাইসরিতে আরো বলা হয়, বর্তমানের করোনা পরিস্থিতিতে যৌন কর্মীদের জন্য বিনামূল্যে করোনা পরীক্ষা এবং মাস্ক, সাবান, স্যানিটাইজারের পরিষেবা নিশ্চিত করতে হবে রাজ্য সরকারকে। যৌন কর্মীদের জন্য জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের এই ভাবনাকে স্বাগত জানিয়েছেন অনেকেই।

ফিচার ফটো: লিঙ্ক

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close