খবররাজ্য

বর্ধমানের পথে হাটল না এসএফআই, কলকাতার রাজপথে ‘গান’-এই শেষ হল প্রতিবাদ

মহানগর বার্তা ডেস্ক: বুধবার বর্ধমানের জেলা শাসক কার্যালয় অভিযান ঘিরে তুলকালাম কাণ্ড ঘটে গিয়েছিল। কিন্তু শুক্রবার আশ্চর্যজনকভাবে একটু বেশিই যেন শান্ত থাকল বাম ব্রিগেড। আজ কলেজ স্ট্রিটে এসএফআইয়ের(SFI) কেন্দ্রীয় জাঠা উপলক্ষে সমাবেশ ছিল। বুধবার বর্ধমানে সিপিএমের(CPM) মিছিল ঘিরে কার্যতা তাণ্ডবলীলা চলার পর এদিন কলকাতার রাজপথ উত্তাল  হয়ে উঠতে পারে বলে আশঙ্কা করেছিলেন অনেকে। কিন্তু তেমন কিছুই হল না।

গত কয়েকদিন ধরেই সৃজন ভট্টাচার্য, প্রতীক উর রহমানের মতো রাজ্যের এসএফআই নেতারা পাল্টা লড়াইয়ের বার্তা দিচ্ছিলেন। এমনকি ২৯ আগস্ট তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সভায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় রক্ত গরম করা ভাষণ দেওয়ার পাল্টা প্রতিক্রিয়া জানিয়েছিলেন সৃজন। এসএফআইয়ের(SFI) রাজ্য সম্পাদক বলেছিলেন, “প্রয়োজনে প্রতিরোধ হবে”। কিন্তু শুক্রবার কলেজ স্ট্রিটের সভায় দেখা গেল তাদের চিরাচরিত ফ্ল্যাশ মব, হাততালি দিয়ে স্লোগান তোলা, গানের মধ্যেই যাবতীয় প্রতিবাদ-প্রতিরোধ সীমাবদ্ধ রাখল এসএফআই।

আরও পড়ুন:দাসত্ব থেকে মুক্তি ভারতের, নৌসেনার নতুন পতাকা উদ্ধোধন করলেন নরেন্দ্র মোদী

ছাত্ররা এমনিতেই বয়সের ধর্ম মেনে একটু বেশি উত্তেজিত থাকে। সেখানে মূল সংগঠন সিপিএম বুধবার বর্ধমানে অগ্রাসী মেজাজ তুলে ধরায় এসএফআইও হয়তো ঝামেলার পথে হাঁটতে পারে, এমনটাই ধারণা করেছিল রাজনৈতিক মহলের একাংশ। তবে বিখ্যাত গায়ক অর্ক ‘হাম দেখেঙ্গে’ বা ‘যখন ওরা ফসল ফলায়’ গেয়ে সংহতের বার্তা দিলেন। আর তাতেই ঢেউ উঠল জমায়েতে। তাতেই আপাতত খান্ত হল এস‌এফ‌আই। তবে এদিন বাম ছাত্রদের জমায়েত ছিল দেখার মতো। এ যাবত কালের মধ্যে এসএফআইয়ের(SFI) এই জমায়েত কার্যত রেকর্ড তৈরি করেছে বলে বাম শিবিরের দাবি।

আরও পড়ুন: ভিটেমাটির টান! ৭৬ বছর পর আদি বাড়ি খুঁজতে বাংলাদেশ পাড়ি হাওড়ার গায়ত্রীর

যদিও এদিন এসএফআইয়ের(SFI) শান্ত মেজাজ দেখে পালটা কটাক্ষ করেছে টিএমসিপি। তাদের একাংশের বক্তব্য, দাদাদের উপর প্রশাসনের কড়া মনোভাব দেখে ভয় পেয়ে গিয়েছে ভাইয়েরা।

সবার খবর সঠিক খবর পড়তে চোখ রাখুন মহানগর বার্তায়

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close