রাজনীতি

যেন রোমিও-জুলিয়েট! ‘সৌমিত্রকে নিঃস্বার্থ ভাবে ভালোবাসি’, আবেগপ্রবণ সুজাতাও

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্কঃ একুশের বিধানসভা নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে, রাজনৈতিক বাদানুবাদে ততই উত্তপ্ত হচ্ছে বাংলার পরিস্থিতি। তবে ভোটের আগে যে এখনও বাংলার রাজনৈতিক মঞ্চে অনেক রঙ্গ বাকি আছে, ক্রমেই যেন স্পষ্ট হচ্ছে সেই ইঙ্গিত। বিজেপি নেতা সৌমিত্র খাঁর স্ত্রী সুজাতার তৃণমূলে যোগদান আরো একবার সেই কথাই প্রমাণ করল।

স্ত্রীর তৃণমূলে যোগদানের পর সাংবাদিক সম্মেলনে চোখের জল ফেলেছেন সৌমিত্র খাঁ। পাঠিয়েছেন বিবাহ বিচ্ছেদের নোটিশও। এরপর আর চোখের জল ধরে রাখতে পারলেন না সুজাতা দেবীও। এ বিষয়ে তাঁর প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি বলেন, “আমি সৌমিত্রকে নিঃস্বার্থ ভাবে তখনও ভালোবাসতাম, এখনও ভালোবাসি। আগামী দিনেও ভালোবাসবো।”

আবেগপ্রবণ সুজাতা আরো বলেন, “ও আমাকে পদবী থেকে বাদ দিক, ঘর থেকে বের করে দিক,যা খুশি করুক। বাবা মার অমতে বিয়ে করেছিলাম। পরে অবশ্য বাবা মা-ই ধুমধাম করে বিয়ে দিয়েছিল। ওকে ভরসা করে এত বড় সিদ্ধান্ত আমি তখন নিতে পেরেছিলাম।” এরপর সুজাতা দেবীর গলায় ঝরে পড়ে অভিমান। “আজ ৮-৯ মাস সেই মানুষের মনে হয় নি তাঁর সুজাতাকে দরকার। খাতায় কলমে আর কি যায় আসে। শুধুমাত্র দল ত্যাগ করার জন্য ১০ বছরের সম্পর্কে ও দাঁড়ি টানতে পারল। ডিভোর্সের নোটিশ এখানে খুব তুচ্ছ ব্যাপার।”

বস্তুত, কিছুদিন আগে বিজেপির নবান্ন অভিযানের সময়েও সুজাতা দেবীকে দেখা গেছে সামনের সারিতে থেকে সৌমিত্র বাবুকে সাহায্য করতে। এ ব্যাপারে প্রশ্ন করলে সুজাতা দেবীর উত্তর, “রাজ্য বিজেপিতে তো কোনো নেতা নেই। বাইরে থেকে নেতা আনতে হচ্ছে। তৃণমূলেল নেতারাই নাকি বিজেপিতে এসে রত্ন হয়ে যাচ্ছে। তাদের নিয়ে আগামী দিনে ক্ষমতায় আসার চিন্তা করছে বিজেপি।” সৌমিত্র খাঁকে বিজেপি যোগ্য সম্মান দেয় নি বলেও অভিযোগ জানিয়েছেন তাঁর স্ত্রী সুজাতা দেবী।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এদিন সুজাতা দেবীর তৃণমূলে যোগদানের খবর শুনেই সাংবাদিক সম্মেলন ডেকে তাঁকে বিবাহ বিচ্ছেদের নোটিশ পাঠান সৌমিত্র বাবু। তিনি বলেন তাঁর ঘরের লক্ষ্মী কখন চুরি হয়ে গেছে তিনি তার খবর পান নি। এদিন তার পরিপ্রেক্ষিতে সুজাতা দেবীর বক্তব্য, “সৌমিত্রর সঙ্গে যদি আমার অন্তরের সম্পর্ক হয়, তাহলে কোনো পার্টি আমাদের বিচ্ছেদ ঘটাতে পারবে না।” সবমিলিয়ে এদিন যে নাটকীয় রাজনৈতিক পটপরিবর্তনের সাক্ষী থাকল বাংলা, একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে তা যে যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ তা বলাই বাহুল্য।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close