রাজনীতিরাজ্য

“গোটা বাংলাই আমার পরিবার”, বিয়ে না করার কারণ হিসেবে বললেন শুভেন্দু অধিকারী

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: একুশের বিধানসভা নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে, রাজনৈতিক বাদানুবাদে ততই উত্তপ্ত হচ্ছে বাংলার পরিস্থিতি। একদিকে যেমন লোকসভা নির্বাচনের সাফল্যকে হাতিয়ার করে মসনদ দখলের লড়াইয়ে ঝাঁপাচ্ছে বিজেপি, অন্যদিকে তেমনই ক্ষমতা ধরে রাখতে মরিয়া তৃণমূলও। এমতাবস্থায় শাসকদলকে অস্বস্তিতে ফেলে মন্ত্রীত্ব ছেড়েছেন দলের হেভিওয়েট নেতা শুভেন্দু অধিকারী। তাঁর দল ত্যাগ নিয়েও শুরু হয়েছে গুঞ্জন।

মঙ্গলবার হলদিয়ার একটি সভা থেকে স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতেই দলীয় অসন্তোষের প্রসঙ্গের বাইরে গিয়ে কথা বললেন শুভেন্দু অধিকারী। বললেন সাধারণ মানুষের সেবার কথা। দলের ছত্রছায়ার বাইরে থেকে দীর্ঘদিন ধরে যে প্রচার চালাচ্ছেন প্রাক্তন পরিবহন মন্ত্রী, এদিন তাকেই আরো জোরদার করলেন তিনি।

এদিন সভা মঞ্চ থেকে তিনি বলেন, “শুভেন্দুর পরিবার ৫ জন ৭ জনের পরিবার নয়। গোটা বাংলা ও বাঙালিকে নিয়েই শুভেন্দুর পরিবার।” এখানেই শেষ নয়, রহস্যকে উস্কে দিয়ে তিনি আরো বলেন, “আগামী দিনে গ্রাম জিতবে, জেলা জিতবে, বাংলা জিতবে।” একুশের নির্বাচনের আগে যখন শুভেন্দু অধিকারীর অবস্থান নিয়ে ধোঁয়াশা সৃষ্টি হয়েছে, তখন তাঁর এই বার্তা নিঃসন্দেহে তাৎপর্যপূর্ণ।

বস্তুত এদিন নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে সভায় উপস্থিত জনতার কাছে খোলামেলা আলোচনা করেন শুভেন্দু অধিকারী। জানান, কেন তিনি বিয়ে করেননি। শুভেন্দু বলেন অনেকেই তাঁকে জিজ্ঞাসা করে থাকেন তাঁর ভাইরা বিয়ে করা সত্ত্বেও নিজে তিনি কেন বিয়ে করেননি। এরপর নিজেই এর উত্তর দেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী। তাঁর কথায়, “আমি বর্তমান যুগের রাজনীতিকদের দেখে অকৃতদার নই। অমি সুশীল ধারা, সতীশ সামন্ত অজয় মুখোপাধ্যায়ের জীবনী পড়ে অকৃতদার। তাঁরা বলে গেছেন, “দিবি সবটা দে, পুরোটা দে।আমি সেই মন্ত্রেই দীক্ষিত।” এরপরই গোটা বাংলার মানুষকে নিয়েই তাঁর পরিবার গড়ে উঠেছে বলে জানান শুভেন্দু অধিকারী।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, শুভেন্দু অধিকারীর বিজেপিতে যোগ দেওয়া নিয়ে ইতিমধ্যেই রাজ্য জুড়ে শুরু হয়ে গেছে জোর জল্পনা। চলতি সপ্তাহেই দলবদল করতে চলেছেন তিনি, শোনা গেছে তেমনটাই। তবে নিজে এ ব্যাপারে স্পষ্ট মন্তব্য করেননি তিনি।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close