রাজ্যরাজনীতি

“আমার সময় কোনো দুর্নীতি হয়নি”, গ্ৰেফতার হয়ে বিস্ফোরক অধ্যাপক সুবিরেশ

মহানগর বার্তা ডেস্ক : এসএসসি নিয়োগ মামলায় গ্রেফতার উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুবিরেশ ভট্টাচার্য৷ এই প্রথম নিয়োগ কেলেঙ্কারির দায়ে গ্রেফতার হলেন কোনও বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য৷ পার্থ ‘ঘনিষ্ঠ’ বলে পরিচিত সুবিরেশ ভট্টাচার্য দুর্নীতিতে মদত দিয়েছেন বলেই সূত্রের খবর ৷ তৃণমূলের সঙ্গেও ছিল বেশ ভাল যোগাযোগ৷ অতীতে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের ধর্ণা মঞ্চেও উপস্থিত থাকতে দেখা গিয়েছে সুবিরেশকে।

জানা গিয়েছে, বিগত বেশ কিছু দিন ধরেই তাঁর বাড়িতে দফায় দফায় তল্লাশি অভিযান চালিয়েছিল গোয়েন্দারা। কলকাতার বাঁশদ্রোণী এলাকায় তাঁর ফ্ল্যাট ছিল। সেই ফ্ল্যাট সিল করা হয়। কিন্তু সুবিরেশ সেখানে ঢুকতে না পেরে সোজা তাঁর ফ্ল্যাটের ছাদে পৌঁছে যান। ছাদে দাঁড়িয়েই কথা বলেন উপস্থিত সাংবাদিকদের সঙ্গে। সেখানেই তিনি জানিয়েছিলেন, “আমার আমলে একটি নিয়োগেও দুর্নীতি হয়নি। পদ্ধতিগত কিছু ত্রুটি থাকতে পারে। তবে ওটুকুই।”

এরপরেই নিয়োগ দুর্নীতিতে তাঁর কী ভূমিকা সেটাই খতিয়ে দেখতে পদক্ষেপ নিয়েছিল সিবিআই। বাড়ি ছাড়াও তাঁর দফতরেও তল্লাশি অভিযান চালান হয়। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে সুবীরেশের কোয়ার্টারেও যায় সিবিআই। আজ অবশেষে তাঁকে গ্রেফতার করল তাঁরা।

সূত্রের খবর, কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে প্রাক্তন বিচারপতি আর কে বাগের কমিটির রিপোর্টে সুবিরেশ ভট্টাচার্যের নাম ছিল। এই মুহূর্তে এই মামলায় সিবিআই গ্রেফতারির সংখ্যা ৬। নিয়োগ কেলেঙ্কারি মামলায় ইতিমধ্যেই ইতি ১০৩ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেযাপ্ত করেছে৷ পেশ করে হয়েছে প্রথম চার্জশিট৷ এদিকে, শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতির ৩ প্রধান অভিযুক্ত পার্থ চট্টোপাধ্যায়, কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় ও শান্তিপ্রসাদ সিনহা, এই মুহূর্তে তিনজনেই আছেন সিবিআই হেফাজতে। এবার সুবিরেশ ভট্টাচার্যকেও তাদের সামনে বসানো হবে কিনা, তা সময়ই বলবে।

 

 

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close