হেলথরাজনীতিরাজ্য

‘স্বাস্থ্য সাথী কার্ড ছাড়াই আমরা মানুষের সাথী’, সরকারি প্রকল্পকে ব্যঙ্গ সূর্য্যকান্ত মিশ্রের

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে নানা বিষয়কে কেন্দ্র করে ক্রমেই উত্তপ্ত হয়ে উঠছে বাংলার রাজনৈতিক পরিস্থিতি। এক দিকে যেমন গত লোকসভা নির্বাচনের সাফল্যকে হাতিয়ার করে মসনদ দখলের লড়াইয়ে ঝাঁপাচ্ছে বিজেপি, অন্যদিকে তেমনই ক্ষমতা ধরে রাখতে মরিয়া তৃণমূলও। পিছিয়ে নেই বাম-কংগ্রেস জোটও। এমতাবস্থায় ভোটের আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নতুন প্রকল্পকে তীব্র কটাক্ষ করলেন বাম নেতা সূর্য্যকান্ত মিশ্র।

চলতি মাসেই চালু হয়েছে তৃণমূল সরকারের ‘দুয়ারে সরকার’ এবং ‘স্বাস্থ্য সাথী’ প্রকল্পের বাস্তবায়ন। কিন্তু এর মাঝেই এক জায়গা থেকে খবর এসেছে, সরকারি স্বাস্থ্য সাথী কার্ড থাকা সত্ত্বেও রোগীকে হেনস্থা হতে হয়েছে নার্সিংহোমে।এদিন সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই রাজ্য সরকারকে সোশ্যাল মিডিয়ায় তীব্র আক্রমণ করেছেন সিপিআইএম নেতা সূর্য্যকান্ত মিশ্র।

এদিন নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ থেকে সূর্য্যকান্ত মিশ্র লেখেন, “সরকার শুধু কার্ড দেয়। স্বাস্থ্য সাথী হয় না।” এরপর তাঁর আরো সংযোজন, “আমাদের কার্ড নেই, কিন্তু সাথী হয়ে দুর্গত মানুষের পাশে দাঁড়াই। এমন একটা সরকার চাই যে আমাদের পাশে দাঁড়ায়।” নিজের পোস্টের সঙ্গে খবরের কাগজের একটি পৃষ্ঠার ছবিও জুড়ে দিয়েছেন প্রাক্তন মন্ত্রী। আর তাতেই ছিল স্বাস্থ্য সাথী কার্ড থাকা সত্ত্বেও রোগীকে হেনস্থার খবর।

https://www.facebook.com/1541882679462749/posts/2889176188066718/?app=fbl

গত ২৪ উত্তর দিনাজপুরের ডিসেম্বর রায়গঞ্জে এক অসুস্থ বৃদ্ধাকে হেনস্থার শিকার হতে হয়। মুখ্যমন্ত্রীর কথা অনুযায়ী স্বাস্থ্য সাথী কার্ড নিয়ে নার্সিংহোমে চিকিৎসার জন্য গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সেখানে কোনো চিকিৎসা না মেলার অভিযোগ করেছেন ওই বৃদ্ধার ছেলে। স্বাস্থ্য সাথী কার্ড দেখা সত্ত্বেও নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ কেন শ্বাসকষ্টের রোগীকে ফিরিয়ে দিলেন, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, চলতি মাসেই সরকারি স্বাস্থ্য সাথী কার্ড সার্বজনীন ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এর মাধ্যমে রাজ্যের সকলেই বিনা মূল্যে চিকিৎসা পেতে পারবেন, জানা গেছে তেমনটাই। ভোটের আগে তৃণমূল সরকারের এই নতুন উদ্যোগকে কটাক্ষ করেছেন বিরোধী নেতৃবৃন্দ। এদিন সূর্য্যকান্ত মিশ্রের পোস্টেও দেখা গেল সেই একই ছবি।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close