বিনোদন

আত্মহত্যা নয়, খুন! সুশান্তকান্ডে মত বাবা রামদেবের

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্ক: সুশান্ত সিং রাজপুত আত্মহত্যা করেন নি, তাঁকে নিশ্চয়ই আত্মহত্যা করতে বাধ্য করা হয়েছিল- এমনটাই মত বাবা রামদেবের। জনৈক টেলিভিশন প্রতিনিধির সঙ্গে সুশান্ত মৃত্যু রহস্য নিয়ে কথা বলতে গিয়ে ভারতের এই যোগব্যায়াম গুরু এদিন জানান, তাঁর মনে হয় সুশান্ত সিং রাজপুতের মতো উচ্চ শিক্ষিত , সৎ ও মেধাবী ব্যক্তি এই ধরণের হঠকারী সিদ্ধান্ত কখনোই নিতে পারেন না।

আরো একধাপ এগিয়ে গিয়ে এই বিষয়ে তাঁর বক্তব্য, ড্রাগ নিতেও নাকি বাধ্য করা হত সুশান্তকে। জোর করে ড্রাগ নিতে বাধ্য করা হত বলেই আজ অভিনেতা বেঁচে নেই, আক্ষেপের সুর শোনা যায় রাম কিষাণ যাদব ওরফে বাবা রামদেবের গলায়।তাঁর দৃঢ় বিশ্বাস, সুশান্ত সিং রাজপুতের মতো মেধাবী, কর্মক্ষম প্রাঞ্জল মানুষ কিছুতেই আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে পারেন না। এই অস্বাভাবিক ও চরম রহস্যময় মৃত্যুকে তাই খুন বলে ঘোষণা করতেও কুন্ঠিত হন নি তিনি।

প্রসঙ্গত, গত জুন মাসে মুম্বাইয়ের বান্দ্রায় নিজের ফ্ল্যাটের ঘর থেকে ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয় বড় পর্দার মহেন্দ্র সিং ধোনি তথা সুশান্ত সিং রাজপুতের। জনপ্রিয় অভিনেতার আকস্মিক এই মৃত্যুর খবর প্রকাশ্যে আসার পরেই তোলপাড় শুরু হয় দেশজুড়ে। আদেও আত্মহত্যা নাকি এই মৃত্যুর পিছনে লুকিয়ে আছে অন্য কোনো সত্যি, আরো বড় কোনো রহস্যের জাল? শুরু হয় জল্পনা। ড্রাগ মামলায় গ্রেফতার হন সুশান্ত সিং রাজপুতের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী, তাঁর ভাই শৌভিক চক্রবর্তী সহ আরো কয়েকজন। ড্রাগ মামলায় সেই সঙ্গেই নাম জড়াতে থাকে একের পর এক বলিউডের প্রথম শ্রেণীর অভিনেত্রীর, এমনকি বাদ যান না দীপিকা পাডুকোনও। সুশান্তের এহেন রহস্যময় মৃত্যু যে কোন অবস্থাতেই স্বেচ্ছায় আত্মহত্যা হতে পারে না, এদিন দৃঢ় প্রত্যয়ের সঙ্গে সেই কথাই বারবার জানান বাবা রামদেব।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close