রাজ্যরাজনীতি

বড়ো খবর: বিজেপিতে যাচ্ছেন না, তৃণমূলেই থাকছেন শুভেন্দু অধিকারী

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে দলীয় অসন্তোষের যে কালো মেঘ দেখা দিয়েছিল শাসক শিবিরের আকাশে অবশেষে তা কিছুটা হলেও কাটল। পরিবহন মন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দিলেও আপাতত দল ছেড়ে যাচ্ছেন না তৃণমূল কংগ্রেসের হেভিওয়েট নেতা শুভেন্দু অধিকারী। কলকাতায় বসে মুখোমুখি বৈঠকে অবশেষে সমাধান সূত্র মিলেছে বলেই খবর বিশেষ সূত্রে।

মঙ্গলবার কলকাতায় তৃণমূল কংগ্রেসের বৈঠক আয়োজিত হয়েছিল। সেখানে উপস্থিত ছিলেন শাসকদলের নির্বাচনী উপদেষ্টা প্রশান্ত কিশোর, তৃণমূল নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁদের সঙ্গেই মঙ্গলবার বৈঠকে যোগ দেন প্রাক্তন পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন আরো একাধিক তৃণমূল কংগ্রেস নেতা। সূত্রের খবরে জানা গেছে, আপাতত দলেই থাকছেন শুভেন্দু অধিকারী।

বস্তুত, গত সপ্তাহেই পরিবহন মন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। দীর্ঘদিন ধরেই দলের অভ্যন্তরে তাঁর অসন্তোষ নিয়ে দানা বাঁধছিল জল্পনা। দলত্যাগ করতে পারেন তিনি, শোনা যাচ্ছিল এমনটাই। এরপরই সামনে আসে তাঁর মন্ত্রীত্ব ত্যাগের সিদ্ধান্ত। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে সরাসরি পদত্যাগ পত্র জমা দেন তিনি। শুভেন্দু অধিকারীর পদত্যাগের পর স্বভাবতই মনে করা হয়েছিল ভোটের আগে ভাঙন ধরতে চলেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দলে। কিন্তু পদ ত্যাগ দল ত্যাগ পর্যন্ত গড়াল না। অবশেষে গলল বরফ। এবার কি তবে মন্ত্রীত্বেও ফিরবেন শুভেন্দু অধিকারী? তৈরি হয়েছে জল্পনা।

এ দিন উত্তর কলকাতায় পিকে ও অভিষেকের সঙ্গে বৈঠকে বসেন শুভেন্দু অধিকারী। বৈঠকে ছিলেন দুই প্রবীণ সাংসদ সৌগত রায় ও সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখোমুখি আলোচনায় শুভেন্দু অধিকারীর অসন্তোষের সমাধান সূত্র মিলেছে, জানা গেছে তেমনটাই। তবে কীসের ভিত্তিতে রফা হল, তা এখনও পর্যন্ত জানা যায়নি। সূত্রের খবর, বৈঠকে বন্ধুত্বপূর্ণ আলোচনা হয়েছে। নিজের ক্ষোভের কথা জানিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। মূলত প্রশান্ত কিশোরকে নিয়েই সমস্যা ছিল শুভেন্দুর, মনে করা হচ্ছিল তেমনটাই।তবে আলোচনার রাস্তা খোলা ছিল বলে আগেই জানিয়েছিলেন সৌগত রায়।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close