দেশ

লাভ জিহাদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ, এবার কড়া আইন আনতে চলছে যোগী প্রশাসন

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: বিবাহের নামে ধর্মান্তর বা লাভ জিহাদ নিয়ে বেশ কিছু দিন ধরেই দেশ জুড়ে দানা বেঁধেছে একাধিক বিতর্ক। বিভিন্ন রাজ্যে, বিশেষত বিজেপি শাসিত রাজ্য গুলিতে ইতিমধ্যেই এই ধর্মীয় প্রতারণা রুখতে কড়া আইন প্রণয়নের ইচ্ছা প্রকাশ করা হয়েছে। কর্ণাটক, হরিয়ানা, মধ্যপ্রদেশের পর এবার লাভ জিহাদ নিয়ে সেই একই পথে হাঁটল উত্তর প্রদেশ সরকারও।

জানা গেছে, অন্যান্য বিজেপি শাসিত রাজ্য গুলির মতোই এবার উত্তর প্রদেশ সরকারও রাজ্যের আইন মন্ত্রকের কাছে লাভ জিহাদ বিরোধী আইন প্রণয়নের প্রস্তাব পেশ করেছে। শুক্রবারই রাজ্যের এক মুখপাত্র এই খবর নিশ্চিত করেছেন। উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ কিছু দিন আগে একটি নির্বাচনী প্রচার সভায় অংশগ্রহণ করে এই আইনি প্রস্তাবের কথা মৌখিকভাবে ঘোষণা করেছিলেন। লাভ জিহাদের মোকাবিলায় যে উত্তর প্রদেশ সরকার তাঁদের কড়া অবস্থানে অনড়, সে কথাই জানিয়েছিলেন যোগী আদিত্যনাথ।

এ বিষয়ে সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যম পিটিআইকে উত্তর প্রদেশের আইন মন্ত্রী ব্রিজেশ পাঠক শুক্রবার বলেছেন, ” এই রাজ্যে এই ধরণের ঘটনা বেশ কিছু দিন ধরে বেড়েই চলেছে। এতে সামাজিক বিশৃঙ্খলা এবং শত্রুতা তৈরি হচ্ছে। তাছাড়া এ সমস্ত ঘটনায় দেশের কাছে রাজ্যের মর্যাদাও হ্রাস পাচ্ছে। সেই কারণেই এই মুহূর্তে এর বিরুদ্ধে একটা কড়া আইন প্রয়োজন।” আইন মন্ত্রী আরো বলেন, “আমরা এ ব্যাপারে সমস্ত প্রস্তুতি নিয়েছি। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের কাছ থেকে নির্দেশ পেলেই আমরা যা যা দরকার করব।”

গত ৩১ অক্টোবর উত্তর প্রদেশের জৌনপুর এবং দেওরিয়ার প্রচার সভায় মুখ্যমন্ত্রী আদিত্যনাথ লাভ জিহাদের বিরুদ্ধে কার্যত হুমকি দিয়ে বলেছিলেন, “যাঁরা নিজেদের আসল পরিচয় লুকিয়ে আমাদের বোনেদের ইজ্জতের সঙ্গে খেলে তাঁদের আমি সাবধান করে দিচ্ছি। যদি তোমরা নিজেদের না শুধরাও, তবে তোমাদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে।” এ ব্যাপারে এলাহাবাদ হাইকোর্টের রায়কে স্বাগত জানিয়েই ওই মন্তব্য করেছিলেন যোগী আদিত্যনাথ। সেই সঙ্গে জানিয়েছিলেন অবিলম্বে তাঁর রাজ্যে লাভ জিহাদ বিরোধী আইন আনা হবে। উল্লেখ্য কিছুদিন আগেই মধ্যপ্রদেশ সরকার লাভ জিহাদে পাঁচ বছরের কারাদণ্ডের আইন আনার কথা ঘোষণা করেছিলেন। এর আগে কর্ণাটক এবং হরিয়ানাও আইনি ব্যবস্থার কথা জানিয়েছিলেন। এবার উত্তর প্রদেশও সেই একই পথে হাঁটল।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close