fff
রাজনীতি

Uttarpradesh:’মাফিয়াদের জন্য কুখ্যাত গোরখপুর এখন উন্নয়নে বিখ্যাত’, দাবি যোগীর

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্কঃ অভিযোগ ছিলো এক সময় উত্তরপ্রদেশ (Uttarpradesh) জুড়েই গুন্ডা রাজ ও মাফিয়াতন্ত্র চলতো। বিশেষত  গোরখপুরের (Gorakhpur) বদনাম ছিলো মাফিয়া রাজের জন্য। ভয়বহ মশার উৎপাতের জন্য কুখ্যাত ছিলো গোরখপুর (Gorakhpur)। বর্তমানে বিজেপি’র (BJP) শাসনে উত্তরপ্রদেশ (Uttarpradesh) জুড়ে ‘উন্নয়নের’ রথ ছুটছে বলেই দাবি বিজেপি’র (BJP) কেন্দ্রীয় ও রাজ্য নেতৃত্বের। উত্তরপ্রদেশের (Uttarpradesh) ‘উন্নয়ন’ নিয়ে ঢালাও প্রচারও চালানো হয় দেশজুড়ে। উত্তরপ্রদেশের (Uttarpradesh) মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath) এখন দেশজুড়েই বিজেপি (Bjp) এর প্রচারের অন্যতম মুখ। ইদানিং বিভিন্ন ক্ষেত্রেই বিজেপি (Bjp) প্রচার করে ‘উত্তরপ্রদেশ মডেল’ এর। একসময়ের মাফিয়া তন্ত্রে জর্জরিত উত্তরপ্রদেশকে (Uttarpradesh) নতুনভাবে গড়ে তুলেছেন যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath), এমনটাই বিজেপি (BJP) নেতৃত্বের। উত্তরপ্রদেশের (Uttarpradesh) মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath) গোরখপুর (Gorakhour) থেকেই বিধায়ক হিসাবে নির্বাচিত হয়েছেন। এর আগের পর্বের মুখ্যমন্ত্রীত্বের কালেও গোরখপুরই (Gorakhour) ছিলো তাঁর নির্বাচনী ক্ষেত্র। বিরোধীদের অভিযোগ খোদ মুখ্যমন্ত্রীর নির্বাচনী ক্ষেত্র তথা জেলাতেই ন্যূনতম সরকারি পরিসেবা পাওয়া যায়না। এবার এই অভিযোগেরই জবাব দিলেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath)। বুধবার গোরখপুর মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনের ৪২২টি প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath) বলেন, “একটা সময় ছিলো, যখন গোরখপুর (Gorakhpur) মশা এবং মাফিয়াদের কারণে কুখ্যাত ছিলো। কিন্তু বর্তমানে উন্নয়নের জন্য বিখ্যাত।” এই অনুষ্ঠানেই উত্তরপ্রদেশ (Uttarpradesh) এর বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী দাবি করেন, অতীতে উদ্যোগপতিরা উত্তরপ্রদেশে (Uttarpradesh) বিনিয়োগ করতে ভয় পেতেন, এমনকি উত্তরপ্রদেশের (Uttarpradesh) ব্যবসায়ীদের ঋণ দিতে বা নিতেও ভয় পেতেন। যুবকরা চাকরি পেতোনা রাজ্যে। কিন্তু বিগত পাঁচ বছরে পরিস্থিতির আমূল পরিবর্তন হয়েছে। তাঁর কথায়, “বিগত পাঁচ বছরে রাজ্য জুড়ে প্রভূত উন্নয়ন হয়েছে। এবং আমরা সবাই মিলে হাতে হাত ধরে গোরখপুরকে (Gorakhour) সুন্দর করে গড়ে তুলেছি।” এই অনুষ্ঠানেই গোরখপুর (Gorakhpur) এর বিধায়ক তথা উত্তরপ্রদেশ (Uttarpradesh) এর মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath) আরো বলেন, “গোরখপুরে (Gorakhpur) এখন দিল্লী এবং মুম্বাইয়ের মতো চওড়া রাস্তা হয়েছে এবং জেলায় একটি এইমস আছে। একটি কীটনাশক প্রস্তুত কেন্দ্র গড়ে উঠেছে এবং বিআরডি মেডিক্যাল কলেজ তার সেরা পরিসেবা দিচ্ছে। গোরখপুরে (Gorakhpur) একটি চিড়িয়াখানা এবং রামগড় তাল লেক রয়েছে। শহরের খুব কাছেই এয়ারপোর্ট আছে এবং যোগাযোগ মাধ্যমও যথেষ্ট উন্নত হয়েছে।”

যদিও যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath) এই দাবির সারবত্ত্বা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিরোধীরা। এই প্রসঙ্গেই তারা মনে করাচ্ছেন ২০১৭ সালের একটি ঘটনা। এই গোরখপুরেই মুখ্যমন্ত্রীর নির্বাচনী ক্ষেত্রে অক্সিজেনের অভাবে মারা যায় ১,৩১৭ জন শিশু। যে বিআরডি মেডিক্যাল কলেজ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath) তাঁর বক্তব্যে প্রশংসা করেছেন, সেই হাসপাতালেই ঘটে এই ভয়াবহ ঘটনা। গোটা দেশ জুড়ে শোরগোল শুরু হয়ে। একটি মেডিক্যাল কলেজে অক্সিজেন সিলিন্ডারের অভাবে এতোজন শিশুর একসঙ্গে মৃত্যু নিয়ে সোচ্চার হয় দেশের সমস্ত বিরোধী দলগুলি। সেই সময়েই ডা: কাফিল খান, যিনি ওই হাসপাতালে চেষ্টা করেছিলেন, মুমুর্ষু শিশুদের বাঁচাতে, তাঁকে গ্রেপ্তারী এবং সাসপেন্ড করার ঘটনা নিয়েও সরব হয় বিরোধীরা। দেশ ছাড়িয়ে আন্তর্জাতিক স্তরেও তখন এই গোরখপুর (Gorakhpur) শিশুমৃত্যুর প্রকৃত তদন্ত এবং ডা: কাফিল খানের মুক্তির দাবি উঠতে থাকে। বিরোধী একযোগে আক্রমণ করেন উত্তরপ্রদেশ (Uttarpradesh) এর বিজেপি (Bjp) সরকারকে। বিরোধীদের মূল নিশানা ছিলো যোগী প্রশাসনের দিকে। সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরিকাঠামোহীনতা খোদ মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচনী ক্ষেত্রে; এতেই ক্ষুব্ধ হন অনেকেই। সম্প্রতি গোরখপুর (Gorakhpur) এর উন্নয়ন নিয়ে যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath) বক্তব্যের প্রেক্ষিতে গোরখপুরেরই (Gorakhpur) এই ঘটনার কথাও স্মরণ করিয়ে দিচ্ছেন বিরোধীরা। তাদের দাবি মূল পরিকাঠামোর উন্নয়ন আদতে হয়নি যোগী আমলে। পুরোটাই চমক। এর আগেও উত্তরপ্রদেশ (Uttarpradesh) বিধানসভা নির্বাচনের আগে দেশজুড়ে উত্তরপ্রদেশের উন্নয়নের প্রচার করছিলো বিজেপি। সেইসময় তাদের পোস্টারে বড়ো করে যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath) এর সঙ্গেই একটি ব্রিজ এর ছবি দিয়ে তারা উন্নয়নের প্রচার করছিলো। বিরোধীদের অভিযোগ ছিলো, সেই ব্রিজ আদতে ভুয়ো। ওটা আসলে পশ্চিমবঙ্গের মা উড়ালপুরে ছবি। উত্তরপ্রদেশে (Uttarpradesh) ওইরকম কোনো ব্রিজ নেই। নিজেদের উন্নয়নের ঘাটতি ঢাকতে, মিথ্যা ছবি দিয়ে বিজেপি (Bjp) প্রচার করছে বলে অভিযোগ ছিলো বিরোধীদের। সম্প্রতি রাজ্যের উন্নয়ন নিয়ে যোগীর মন্তব্যের প্রেক্ষিতে বিরোধীদের অভিযোগ, মূল পরিকাঠামোর উন্নয়নে মন দেয়নি সরকার। প্রকৃত উন্নয়ন না করে মিথ্যা প্রচার করছে সরকার, এমনটাই দাবি বিরোধীদের। এই প্রসঙ্গেই তারা টেনে আনছেন ২০১৭ সালে গেরখপুর (Gorakhpur) শিশুমৃত্যুর ঘটনা। একই সঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনের আগের সেই পোস্টার বিতর্ককেও আবার নিশানা করেছেন বিরোধীরা।

২০১৭ সালে উত্তরপ্রদেশ (Uttarpradesh) এর মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার আগে যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath) গেরখপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি (bjp) সাংসদ হিসাবে পার্লামেন্টে প্রতিনিধিত্ব করতেন। তাঁর জায়গায় বর্তমানে গোরখপুর (Gorakhpur) লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি (BJP) সাংসদ হিসাবে নির্বাচিত হয়েছেন বিখ্যাত ভোজপুরি অভিনেতা রবি কিষান। মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পরে যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath) গোরখপুর শহর বিধানসভা কেন্দ্র থেকে বিধায়ক হিসাবে জয়লাভ করেন। সম্প্রতি হওয়া উত্তরপ্রদেশ (Uttarpradesh) বিধানসভা নির্বাচনেও তিনি এই কেন্দ্র থেকেই পুনর্বার জয়ী হয়েছেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Close
Close

Adblock Detected

Please Disable your ADBlocker!