fff
ভাইরাল

Viral: ‘আমি পৃথিবী ছেড়ে চলে যাব’ পড়াশোনায় ইচ্ছা নেই জানিয়ে ‘মাকে’ মিষ্টি হুমকি খুদের

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্কঃ সামাজিক মাধ্যম মানেই এখন মুহুর্তে ভাইরাল (Viral) হওয়ার জায়গা। এক লহমায় যে কোনো বিষয় ছড়িয়ে পড়ে বহু মানুষের মধ্যে। বিশেষত সামাজিক মাধ্যমে এখন video ( ভিডিও)র কদর বেশি। কতোরকম মজাদার ভিডিও ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে সামাজিক মাধ্যমের আনাচে কানাচে। আর এই ভিডিও যদি হয় কোনো Little boy (শিশুর) মজাদার (Fun) আচরণ বা কথা নিয়ে তৈরি, তাহলে সেটা ছড়িয়ে পড়তে বেশি সময় লাগেনা। মানুষ চুটিয়ে উপভোগ করেন এইসব (video) ভিডিও। ভিডিও গুলোও ভাইরাল (Viral) হয়ে যায়; আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু হয়ে ওঠে। কয়েকদিন আগেই ভাইরাল (Viral) হয়েছিলো উত্তরপ্রদেশের এক ছয় বছরের শিশুর ভিডিও। গতবছর কাশ্মীরের একটি শিশুর পড়াশুনা নিয়ে ভিডিও ব্যাপকভাবে ভাইরাল (Viral) হয়। এবার নেট মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে আরেকটু শিশুর ভিডিও। যা দেখে হেসে কুটিপাটি সামাজিক মাধ্যমের ব্যবহারকারীরা।

সম্প্রতি একটি ছোটো শিশুর ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে ফেসবুকে। যা উপভোগ করছেন সবাই। এই শিশুর (Little boy) অভিযোগ পড়াশুনা নিয়ে। পড়াশুনা নিয়ে হতাশ হয়েই সে তার বিরক্তির কথা জানাচ্ছে তার মা’কে। আর তার এই বিরক্তি জানানোর ধরণ ভিডিও (Video) বন্দী হয়ে ছড়িয়ে গেছে সামাজিক মাধ্যমে। যা দেখে মজা (Fun) উপভোগ করছেন সব স্তরের মানুষরাই।

ভিডিও (Video)-তে দেখা যাচ্ছে, একটি ছোটো ছেলে (Little Boy) বাড়িতে পড়াশোনা করা নিয়ে হতাশা প্রকাশ করছে। লেখার একটি খাতাও তার সামনে খোলা আছে। এর পরে তার মা তাকে পড়তে করতে বললে সে বিরক্ত হয়ে ওঠে। বিরক্ত হয়ে সে তার মা’কে হিন্দিতে জানায়, ‘মা, ম্যায় পরেসান হো রাহা হুঁ, ম্যায় দুনিয়া মে কিয়ুঁ আয়া হুঁ। ম্যায় দুনিয়া সে নিকাল জাউঙ্গা, নিকাল জাউঙ্গা”। যার বাংলা করলে দাঁড়ায় “মা আমি বিরক্ত হয়ে উঠছি। আমি এই পৃথিবীতে কেন আছি? আমি এই পৃথিবী ছেড়ে চলে যাব।” যখন তার মা তাকে জিজ্ঞেস করে, সে কেন পৃথিবী ছেড়ে বেরিয়ে যেতে চায়। এর উত্তরে ওই খুদে জানায়, সে এই পৃথিবীতে থাকতে চায় না। এর জন্য মা এবং পড়াশোনাকেও দায়ী করতে দেখা যায় ওই ছোট্ট শিশুকে (Little boy)। এর পরই তার মা তাকে দেখে হেসে ফেলেন। তার মা’ও তার এই কথায় যে মজা (Fun) পেয়েছেন তা বোঝাই যাচ্ছে ভিডিও (Video)-তে।

https://twitter.com/Introvert__13/status/1553260985653161985?ref_src=twsrc%5Etfw%7Ctwcamp%5Etweetembed%7Ctwterm%5E1553260985653161985%7Ctwgr%5Ec2e704519ad6ad80ae419d164894a370383a21a1%7Ctwcon%5Es1_c10&ref_url=https%3A%2F%2Fanandabazar.com%2Fviral%2Fi-will-leave-earth-little-boy-threaten-mother-as-she-told-him-to-do-homework-dgtl%2Fcid%2F1360394

এই খুদে কান্ডকারখানা এখন উপভেগ করছেন সামাজিক মাধ্যমের ব্যবহারকারীরা। ওই খুদেকে সামনে খুলে রাখা খাতার ওপর পেন্সিল ঠুকে প্রতিবাদ করতেও দেখা যায়।

অনেকে মজা পেলেও, মনোবিদদের মতে, বর্তমানে পড়াশুনার চাপ অনেক শিশুর ওপরেই মানসিক চাপ তৈরি করছে। বয়সের তুলনায় তাদের ওপর যে চাপ সৃষ্টি হচ্ছে তারই ফসল এই হতাশার বহিঃপ্রকাশ। অনেক ক্ষেত্রেই বাড়ির অভিভাবকরাও অযাচিত চাপ শিশুদের ওপর তৈরি করেন বলেই, অভিযোগ মনোবিদদের। যার ফলে আগামী দিনে শিশুদের মনে সুদূরপ্রসারী প্রভাব পড়তে পারে বলে মনে করছেন মনোবিদরা। ফলে তাঁদের পরামর্শ, শিশুদের যতোটা সম্ভব সহজ-স্বাভাবিক পরিবেশ দেওয়ার চেষ্টা করতে হবে। কোনোভাবেই যেন তাদের অতিরিক্ত চাপ না দেওয়া হয়। তাদের মনে হতাশা তৈরি করবে এরকম কোনো পরিস্থিতি তৈরি না করাই ভালো। তারা যতোটা নিতে সক্ষম ততোটাই তাদের বোঝানোর চেষ্টা করা উচিত। নাহলে আগামী দিনে শিশুমনে এই ঘটনাগুলির প্রভাব ভালো হয়না বলেই মনোবিদদের অভিমত।

প্রসঙ্গত, গতবছর কোভিড মহামারী জনিত লকডাউনে, কাশ্মীরের একটি বালিকার ভিডিও ভাইরাল (Viral) হয়। যেখানে সে অতিরিক্ত সময় সাপেক্ষ পড়াশুনা ও হোমওয়ার্কের চাপের কারণে খোদ প্রধাণমন্ত্রীর কাছে অভিযোগ জানায়। মুহুর্তে ভাইরাল (Viral) হয়ে যায় তার এউ ভিডিও (Video) বার্তা।

সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের কণৌজের একটি ছয় বছরের বালিকার চিঠি ভাইরাল হয়েছে। যেখানে সে শিক্ষা সামগ্রীর দাম বৃদ্ধির কারণে প্রধাণমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে দায়ি করেছে। এবং অভিযোগ করেছে পেন্সিল রাবারের এতোটাই দাম বেড়েছে, এখন একটা নতুন পেন্সিল চাইলেও তার মা তাকে মারে। এই চিঠিও মুহুর্তে ছড়িয়ে যায় সামাজিক মাধ্যমে।

শিশুদের এইসমস্ত ভিডিও (Video) মুহুর্তে ভাইরাল (Viral) হয়ে যাচ্ছে। সাধারণ মানুষ এইসব ভিডিও (Video) দেখে মজা (Fun) পেলেও, মনোবিদরা কিছুটা আশঙ্কিত। তাঁরা মনে করছেন, মানুষের আনন্দের জন্য ছড়িয়ে দিচ্ছে এইসব ভিডিও। কিন্তু একজন শিশু ঠিক কতোটা মানসিক চাপের ফলে এরকম আচরণ করে সেইদিকেও নজর দেওয়া প্রয়োজন। আমরা শুধুমাত্র সেই সময়ে তার অভিব্যক্তি দেখে মজা (Fun) পেলেও, সেই শিশুর মানসিক চাপের বিষয়ে আরো সচেতন হওয়ার প্রয়োজনিয়তা আছে অভিভাবকদের। তাদের হতাশা, বাকিদের কাছে মজা হলেও, শিশুদের ওপর এর প্রভাব মোটেই ভালো হয়না বলেই মত মনোবিজ্ঞানীদের। তাই এইসব ভিডিও (video) দেখে মজা পেলেও, নির্দিষ্ট পরিস্থিতির নির্দিষ্ট বিশ্লেষণ এবং সংশ্লিষ্ট শিশুদের মানসিক চাপ থেকে মুক্ত রাখার চেষ্টার দিকেই নজর দিতে অনুরোধ করছেন মনোবিদরা।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Close
Close

Adblock Detected

Please Disable your ADBlocker!