হেলথ

কবে ভারতের হাতে আসতে পারে ভ্যাকসিন? সম্ভাব্য সময় জানালেন WHO প্রধান

মহানগর বার্তা ওয়েবডেস্কঃ কোনো রকম ভ্যাকসিন ছাড়া এই অতিমহামারীর হাত থেকে রেহাই পাওয়া যাবে না, এমনটাই জানিয়ে আসছে বিজ্ঞানী মহল। সেইরূপ চেষ্টাও চলছে। বহুবার, বহু রকমের নতুন পদ্ধতি ব্যবহার করে হিউম্যান ট্রায়াল করা হয়েছে। কিন্তু এবার প্রশ্ন আর ঠিক কতদিনের মধ্যে আসতে পারে করোনা র ভ্যাকসিন? এই প্রশ্নের জবাবও দিলেন WHO-এর প্রধান বিজ্ঞানী ডঃ সৌম্য স্বামীনাথন।

গত শনিবার চেন্নাইয়ের এক সংবাদ বৈঠকে WHO-এর প্রধান বিজ্ঞানী তথা ডঃ সৌম্য স্বামীনাথন জানিয়েছেন আগামী একবছরের আগে দেশে করোনা ভ্যাকসিন সম্পূর্ণ ভাবে তৈরী হবে এমন কোনো আশা নেই। এখনো দেশবাসীকে সুস্থ পরিবেশ ফিরে পেতে অপেক্ষা করতে হতে পারে, এমনটাই জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন এখন দেশ তৈরি করোনা ভ্যাকসিন তৈরীর একদম প্রাথমিক স্থানে রয়েছে। সুতরাং এমন কোনো ভ্যাকসিন যা একটি বড়ো সংখ্যক মানুষের উপর প্রয়োগ করা যেতে পারে তার জন্য এখনো বেশ কিছু দিন অপেক্ষা করতে হতে পারে দেশবাসীকে।

WHO এর এই বিজ্ঞানী (ড.সৌম্য স্বামীনাথন) জানিয়েছেন, সাধারণত এই ধরনের ভ্যাকসিন আবিষ্কারের জন্য মোটামুটি কমপক্ষে আট-নয় বছর সময়ে লেগে যায় । তবে এই অতিমহামারীর ক্ষেত্রে মোট আটটি সংস্থা চেষ্টায় আছে মত তাড়াতাড়ি সম্ভব টিকা তৈরী করার জন্যে। কিন্তু তবুও এক থেকে দেড় বছরের আগে কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবেনা বলেই জানিয়েছেন বিজ্ঞানী।

ড.সৌম্য স্বামীনাথন আরো বলেন যে, এখনো পর্যন্ত আটটির মধ্যে কোনো সংস্থাই নিজেদের সাফল্য অর্জনের কোনো খবর WHO টষকে জানায়নি।ওগুলোর ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের সাফল্য অর্জনের পরেই WHO সিদ্ধান্ত নেবে প্রতিষেধকের লাইসেন্সিংয়ের বিষয়ে।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close