গ্রিন রুমবড়ো পর্দা

ভিক্ষার ঝুলি ছেড়ে কিভাবে ধরলেন গানের মাইক! রানু মণ্ডলকে নিয়ে সিনেমায় রানুর ভূমিকায় কে?

মহানগর বার্তা ডেস্ক: জীবন মানেই লড়াই। যুদ্ধের সঙ্গে এগিয়ে চলা। রানাঘাট স্টেশনের ময়লামাখা মহিলার বলিউড-উত্তরণের পথও যেন এক যুদ্ধের নামান্তর। ওঠা-নামার এক অমোঘ গতিপথ! এবার সেই পথকেই সিনেমার পর্দায় আনলেন বাঙালি পরিচালক হৃষিকেশ মণ্ডল। জল্পনা চলছিল, বেশ কিছুদিন আগেই শুরু হয় শ্যুটিং। অবশেষে রানাঘাটের রানু মণ্ডলের বায়োপিকের প্রথম লুক প্রকাশ হল। ‘এক প্যায়ার কা নাগমা’ নামের আধারে সামনে এসেছে ছবির প্রথম পোস্টার। ছবিতে মুখ্য ভূমিকা অর্থাৎ রানু মণ্ডলের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন বলিউড-টলিউডের অন্যতম পরিচিত মুখ, ‘স্যাক্রেড গেমস’ খ্যাত অভিনেত্রী ঈশিকা দে (Eshika Dey)। ঈশিকা একাধিক ওয়েব সিরিজ, বাংলা-হিন্দি সিনেমায় অভিনয় করছেন। আদিতে কলকাতার বাসিন্দা ঈশিকা এখন থাকেন মুম্বইয়ে।

এক ‘প্যায়ার কা নাগমা’ ছবিটি রানু মণ্ডলের জীবন কথার উপর ভিত্তি করে তৈরি হয়েছে। নদিয়ার রানাঘাট স্টেশনে (Ranaghat Station) ভিক্ষা করতেন তিনি। সেখান থেকেই অতিন্দ্র (Atindra) নামে এক যুবকের মাধ্যমে ভাইরাল হন রাণু। দেশজুড়ে মুহূর্তেই পরিচিতি পান রাণু মণ্ডল। তাঁর ডাক পড়ে মুম্বই। গায়ক, সঙ্গীত পরিচালক হিমেশ রেশমিয়ার (Himesh Reshammiya) আমন্ত্রণে ‘তেরি মেরি’ গান গেয়ে ফের ভাইরাল হন রানু। তারপর একাধিক রিয়ালিটি শো। রানু মণ্ডলের খ্যাতি ছড়িয়ে পড়ার মধ্যেই আসে পতনের বাণীও। দিনের পর দিন ধরে ফের একই অবস্থায় ফিরে যান রানু। আবার দূরে সরতে থাকেন কাছের লোকেদের। নানা মন্তব্য এবং আচরণে জনমানসে ভাবমূর্তি নষ্ট হয় তাঁর। ঠিক এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে রানু মণ্ডলের (Ranu Mondal) জীবন নিয়ে এই ছবি বক্স অফিসে ঠিক কতটা সাফল্য এনে দেবে সেটাই দেখার!

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
নিজের লেখা নিজে লিখুন
Close
Close