দেশ

সাবধান! বোনেদের সম্মানহানি নয়, আর নয় লাভ-জিহাদ, কড়া বার্তা যোগীর

মহানগরবার্তা ওয়েবডেস্ক: দেশ জুড়ে ‘লাভ জিহাদ’ নিয়ে বিতর্কের মাঝেই এক তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য করল এলাহাবাদ হাইকোর্ট। হাইকোর্টের তরফে জানানো হল শুধুমাত্র বৈবাহিক সম্পর্ক স্থাপনের জন্য ধর্মের পরিবর্তন কখনোই গ্রহণযোগ্য নয়। আদালতের এহেন মন্তব্যে ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে আলোড়ন। এমনকি উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ‘লাভ জিহাদ’ বন্ধ করার জন্য নতুন আইন প্রবর্তনের কথাও ঘোষণা করেছেন।

জানা গেছে, এদিন এক দম্পতির আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এহেন মন্তব্য করেছে এলাহাবাদ হাইকোর্ট। কয়েক মাস আগে জন্মসূত্রে মুসলমান এক তরুণী এক হিন্দু ছেলেকে বিয়ে করার জন্য নিজের ধর্ম পরিবর্তন করেছিলেন। তারপর ওই দম্পতি নিরাপত্তার জন্য আদালতের কাছে আবেদন করেন। জানা গেছে, তাঁদের আবেদন মঞ্জুর করে নি এলাহাবাদ হাইকোর্টের বিচারপতি। এই পরিপ্রেক্ষিতেই ওই মন্তব্য করেছেন তিনি।

আদালত সূত্রে খবর, চলতি বছরের ৩১ জুলাই বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন ওই দম্পতি। আর তার ঠিক মাস খানেক আগে ২৯ জুন তরুণী নিজের ধর্ম পরিবর্তন করে হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করেন। এর থেকে আদালতের পর্যবেক্ষণ, “শুধুমাত্র বিয়ে করার জন্যই ধর্ম পরিবর্তন করেছিলেন ওই তরুণী।” এই পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে আদালত জানায়, বিয়ে করার জন্য ধর্ম পরিবর্তন কখনোই গ্রহণযোগ্য নয়। তাই গত ২৩ সেপ্টেম্বর এলাহাবাদ হাইকোর্টের বিচারপতি মহেশ চন্দ্র ত্রিপাঠির সিঙ্গেল বেঞ্চ একটি নির্দেশিকা জারি করে দম্পতির আবেদন খারিজ করে দেয়।

এ প্রসঙ্গে মন্তব্য করতে গিয়ে উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ জানিয়েছেন, অবিলম্বে তিনি লাভ জিহাদ অর্থাৎ বিবাহের নামে ধর্ম পরিবর্তনের বিরুদ্ধে নতুন আইন আনার চেষ্টা করবেন।” যাঁরা নিজেদের আসল পরিচয় লুকিয়ে আমাদের বোনেদের ইজ্জতের সঙ্গে খেলে, তাদের আমি সাবধান করে দিচ্ছি। যদি তোমরা তোমাদের পদ্ধতি ঠিক না করো, তবে তোমাদের ‘রাম নাম সত্যের’ পথে যাত্রা শুরু হবে”, বলেন তিনি।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, জনপ্রিয় গয়না প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান তনিশক্ এর একটি বিজ্ঞাপনকে কেন্দ্র করে কিছুদিন আগে লাভ জিহাদ বিতর্ক চালু হয়েছিল। সেই আবহে এলাহাবাদ হাইকোর্টের এদিনের মন্তব্য নিঃসন্দেহে তাৎপর্যপূর্ণ।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close